পাক-ভারত হাই ভোল্টেজ ফাইনাল বিকেলে

স্পোর্টস ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১৮ জুন, ২০১৭ ১১:১২:০৪
#

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে রোববার মুখোমুখি হচ্ছে উপমহাদেশের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। ওভালে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় ম্যাচ হবে। এই ম্যাচ ঘিরে গোটা ক্রিকেট বিশ্বেই উত্তেজনা বিরাজ করছে। ক্রিকেটের আকর্ষণীয় লড়াইও হয় এই দু’দলের মধ্যে। অনেকটা রিয়াল-বার্সার ধ্রুপদী এল ক্লাসিকো।


পাক-ভারত ম্যাচ মানেই জয়-পরাজয় ছাপিয়ে সামনে আসে মর্যাদা, ক্রিকেট আভিজাত্য। ইতোমধ্যে বল গড়ানোর আগেই দু’দেশের সাবেক খেলোয়াড়েরা বাক্যবাণে মাঠ গরম করে তুলেছেন।


তবে মুখে ঠিকই ভারতের আগ্রাসী অধিনায়ক বিরাট কোহলি এই ম্যাচকে অন্য দশটি ম্যাচের মতোই বলছেন। আর পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ জানিয়েছেন, তারা শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক খেলবেন।


ভারতীয় দলে পরিবর্তন দেখা না গেলেও পাকিস্তান দলে ফিরছেন বাম হাতি পেসার মোহাম্মদ আমির। তিনি ইনজুরির কারণে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে পেরেছিলেন না। তবে ইনজুরির কারণে ভারতের স্পিনার রবীচন্দ্রন অশ্বিনকে নিয়ে এই ম্যাচে কিছুটা সংশয় রয়েছে।


আসরের শুরুতে ধর্তব্যে না আসলেও চমক উপহার দিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় পাকিস্তান। আর অনুমিতভাবেই ফাইনালে ওঠে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। ফলে ওয়ানডেতে এই প্রথম দর্শকরা উপভোগ করার সুযোগ পেয়েছেন পাক-ভারত ফাইনাল।


২০১৩ সালে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে অনুষ্ঠিত সর্বশেষ আসরে স্বাগতিকদের ৫ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল মহেন্দ্র সিংহ ধোনির দল। চার বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আরো একটি আসরের ফাইনালের মঞ্চে দাঁড়িয়ে ভারত।


সরফরাজ আহমেদের পাকিস্তান এবারই প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে। অর্থাৎ দলটির সামনে প্রথম শিরোপার হাতছানি। অন্যদিকে এই ম্যাচে জিতলেই টানা দু’বার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা ঘরে তুলবে ভারত।


এখন পর্যন্ত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে টানা দুই শিরোপা জয়ের একমাত্র কীর্তি শুধুই অস্ট্রেলিয়ার। ২০০৬ ও ২০০৯ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা ঘরে তুলেছিল রিকি পন্টিংয়ের অস্ট্রেলিয়া।


অবশ্য এবারের আসরে শিরোপা পেলে অস্ট্রেলিয়াকে ছাড়িয়ে নতুন রেকর্ড গড়ে ফেলবে ভারত। হবে রেকর্ড ৩ শিরোপা! এমনিতে ওয়ানডে ক্রিকেটের বৈশ্বিক আসর মানেই অস্ট্রেলিয়ার আধিপত্য। ওয়ানডে বিশ্বকাপের ৫ বারের চ্যাম্পিয়ন তারা। ১৯৯৯, ২০০৩ ও ২০০৭ সালে তো টানা তিনবার। বর্তমান চ্যাম্পিয়নও তারা।


চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও সাফল্যের শিখরে তারা। দু’বারের চ্যাম্পিয়ন দেশটি। অবশ্য ২০০২ সালে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যৌথভাবে শিরোপা জেতায় অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে এই জায়গাটায় সমতা ভারতের। রোববার পাকিস্তানকে হারাতে পারলে ভারতের জন্য থাকছে অজিদের পেছনে ফেলার সুযোগ। সর্বাধিক তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা জেতা হবে ভরতের। দেখার বিষয় চিরশত্রু পাকিস্তানকে ইংল্যান্ডের বুকে হারিয়ে ভারত সেটি করতে পারে কি না।


জারিফ

Print