শৈত্যপ্রবাহ, সর্বনিম্ন দিনাজপুরে ৫.১

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
০৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০২:৩৫:১৬
#

রাজশাহী, পাবনা, দিনাজপুর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের ওপর দিয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। শ্রীমঙ্গল ও সীতাকুণ্ড অঞ্চলসহ ঢাকা, ময়মনসিংহ ও বরিশাল বিভাগ এবং রাজশাহী, রংপুর খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।


আজ রোববার দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল দিনাজপুরে ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ রোববার সন্ধ্যা ছয়টার থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার এক পূর্বাভাসে এসব কথা বলা হয়েছে।


আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারা দেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং তা কোথাও কোথাও দুপুরে পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।


এ ছাড়া অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারা দেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় তাপমাত্রা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।


আবহাওয়ার এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রোববার দেশের উত্তরের জেলা দিনাজপুরে তাপমাত্রা ছিল সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরপরে রাজশাহীতে ঠান্ডা ছিল বেশি। সেখানকার তাপমাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


রোববার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল কক্সবাজারের টেকনাফে ২৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


এদিকে সংবাদ সংস্থা বাসসের খবরে বলা হয়েছে, দিনাজপুরে টানা চার দিনের শৈত্যপ্রবাহে জীবনযাত্রা ব্যাহত হয়ে পড়েছে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রোববার দুপুরে তাপমাত্রা কিছুটা বেড়ে ১১ দশমিক ১ সেলসিয়াস হলেও বিকেলে তাপমাত্রা ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে।


দিনাজপুরের আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক আজাদুল হক মণ্ডল জানান, রোববার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।


সকাল ৯টা পর্যন্ত বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৯৩ ভাগ। ঘণ্টায় ৩ নটিক্যাল মাইল বাতাসের গতিবেগ রেকর্ড করা হয়। গত চার দিন থেকে উত্তরের জনপদ দিনাজপুরসহ এ অঞ্চলে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়। শৈত্যপ্রবাহ আরও দুই দিন থাকবে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে।


এএস

Print