ভুট্রা চাষ লাভ জনক হওয়ায়, শার্শার কৃষকরা ঝুঁকছে ভুট্রা চাষ

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ২০:৪১:২৩
#

বোরো চাষের আগে লাভ জনক ফসল হিসেবে ভুট্রা চাষে এগিয়ে এসেছে শার্শার কৃষকরা। চলতি মৌসুমে ৮০০ বিঘা জমিতে ভুট্রা চাষ হয়েছে। এলাকার চাহিদা মিটিয়ে দেশের অন্য অঞ্চলে রফতানি করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা।


শার্শার বিভিন্ন অঞ্চলের মধ্যে রাজনগর,উলাশি,পান্তাপাড়া, লটাদিঘার, কৃষকরা অধিক লাভের আশায় আমন ধান কেটেই ভুট্রা বীজ বপন করে। সুপার শাহিন ও কাবেরি ৬৩ জাতের ভুট্রা চাষ করেছে কৃষক। ভুট্রা গাছগুলি ফুলে ফলে ভরে উঠেছে। প্রতি বিঘা জমিতে খরচ হয়েছে ৮/১০ হাজার টাকা।


যদি আবহাওয়া ভাল থাকে এবছর ভুট্রার বাম্পার ফলন হওয়ার আশংকা করছে কৃষক। এলাকার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করতে পারবে। তবে কৃষক মোঃ এক্সের আলী ও আব্দুল মুমিন বলেন ভুট্রার নেয্য মুল্য যাতে পাই তার জন্য সরকারের কাছে দাবি করছি।


আগে প্রতি মন ৯’শ থেকে ৯’শ ৫০ টাকা দরে বিক্রি হলেও বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৬’শ টাকা দরে। ভারত থেকে প্রচুর পরিমানে ভূট্রা আমদানি হওয়ায় দেশীয় ভূট্রার বাজার মূল্য কমে গেছে। নায্য মূল্য না পাওয়ায় কৃষকরা হতাশা গ্রস্ত হয়ে পড়েছে।


শার্শা উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা হীরক কুমার সরকার জানায়, এ বছর শার্শা উপজেলাতে ৮০০ বিঘা জমিতে ভুট্রার আবাদ হয়েছে। গত বছরের তুলনায় ভুট্রার আবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে। ভুট্রা একটি ইউটিটেড ফসল হওয়ায় এটা সহজে খরা ও জলাবদ্ধতা সয্য করতে পারে।


প্রতি বিঘায় খরচ হয় ৮/১০ হাজার টাকা। প্রতি বিঘায় লাভ হয় ৩৫/৪০ হাজার টাকা। আমরা চাষীদেরকে বিভিন্ন ধরনের প্রনোদনা ও রাজস্ব খাতের অর্থায়নে চাষীদেরকে বীজ ও সার দিয়ে সহযোগিতা করেছি। আশা করছি আগামিতে এ ভুট্রা চাষ আরও বৃদ্ধি পাবে।



নাছির/এএস

Print