চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের প্রতিপক্ষ লিভারপুল

স্পোর্ট ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৩ মে, ২০১৮ ১৩:৪৪:৩১
#

দীর্ঘ ১১ বছর পর আবারো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠেছে লিভারপুল। সর্বশেষ ২০০৭ সালে ফাইনাল খেলে হারের আক্ষেপ নিয়েই বিদায় নিতে হয় তাদেরকে।


দীর্ঘ বিরতির পর ক্লপের হাত ধরে আবারো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠলো ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সফল দলটি। সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে রোমার কাছে ২-৪ গোলে হারলেও দুই লেগ মিলে ৭-৬ গোলে এগিয়ে থেকে উইরোপ-সেরা আসরের ফাইনালে জায়গা করে নেয় তারা।


অ্যানফিল্ডে প্রথম লেগের বড় ব্যবধানে জয়ে ফাইনাল অনেকটা নিশ্চিত করে ফেলেছিল লিভারপুল। অবশ্য তাতেও রোমা দমে যায়নি। ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই গোলের জন্য আক্রমণ করতে থাকে তারা।


ম্যাচের ৬ মিনিটে ফ্লোরেঞ্জির শট গোলবারের বাইরে দিয়ে চলে যায়। ৯ মিনিটে ম্যাচের প্রথম গোল পায় লিভারপুল। রবার্তো ফিরমিনোর কাছ থেকে বল পেয়ে ডিবক্সের ভেতর থেকে বাঁ পায়ের দারুন শটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন সাদিও মানে।


কিন্তু ১৫ মিনিটেই সমতায় ফেরে রোমা। জেমস মিলনারের আত্মঘাতী গোলে ১-১ গোলের সমতায় ফেরে তারা।


খেলার ২৫ মিনিটে রোমার ফাইনালের স্বপ্ন শেষ করে দেন লিভারপুলের ডাচ ফুটবলার ওয়াইনালদাম। হেড থেকে তার করা গোলে ২-১ গোলের লিড পায় ক্লপের দল।


বিরতিতে যাওয়ার সময় ফাইনালে যাওয়ার টিকেট পেতে রোমার দরকার ছিল পাঁচ গোল। বিরতি থেকে ফিরে সে মিশনে খেলতেও থাকে তারা। ৫২ মিনিটে জেকোর গোলে ম্যাচে সমতায় ফেরে ইতালিয়ান ক্লাবটি। এরপর একের পর এক আক্রমণের পসরা সাজিয়ে বসলেও গোলের দেখা পেতে ব্যর্থ হয় বার্সেলোনাকে হারিয়ে সেমি ফাইনাল নিশ্চিত করা দলটি। তবে ম্যাচের ৮৬ মিনিটে নাঙ্গোইলানের গোলে ৩-২ গোলে এগিয়ে যায় রোমা।


ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ের শেষ মিনিটে ডিবক্সের ভেতরে ক্লাভেনের হ্যান্ডবলের কারণে পেনাল্টি পায় রোমা। স্পট কিক থেকে গোল করে ব্যবধান কমান নাঙ্গোইলান।


দুই লেগ মিলিয়ে ৭-৫ গোলের ব্যবধানে ফাইনাল নিশ্চিত করলো লিভারপুল। ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ।


এএস


 

Print