শিগগিরই রাজনীতিতে ফিরছি না: আনোয়ার ইব্রাহিম

টাইম ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১৬ মে, ২০১৮ ২২:২৪:১৬
#

মালয়েশিয়ার রাজা ইয়াং ডি-পারতুয়ান আগং তার দেশের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ এবং সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিমকে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করার পর আজ (বুধবার) তিনি জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন।


এর মাধ্যমে মালয়েশিয়ার জাতীয় রাজনীতিতে ফিরে আসার পথ তার জন্য পরিষ্কার হলো বলে মনে করা হচ্ছে।


গত বুধবারের (০৯ মে) নির্বাচনে ৯২ বছর বয়সি মাহাথিরের নেতৃত্বাধীন পাকাতান হারাপান জোট বিজয়ী হওয়ার পর আনোয়ারের মুক্তিকে এ জোটের জন্য বড় ধরনের সাফল্য হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।    


বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, জেল থেকে মুক্তির পর আনোয়ার ইব্রাহিম রাজধানী কুয়ালালামপুরে একটি হাসপাতাল থেকে হাস্যজ্জ্বল চেহারা নিয়ে বের হয়ে আসছেন।


ওই হাসপাতালে তার কাঁধে একটি অপারেশন হয়েছে। আস্তে আস্তে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন। এরপর কোনো মন্তব্য করা ছাড়াই রাজার সঙ্গে দেখা করতে সেখান থেকে তিনি সরাসরি প্রাসাদে চলে যান।  


এখন মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির তার পদ থেকে সরে দাঁড়ালে আনোয়ার ইব্রাহিমই হবেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী -জোট গড়ার আগে এমনই চুক্তি হয়েছে তাদের মধ্যে। কিন্তু এরই মধ্যে বলা হয়েছে, ক্ষমতার প্রথম দু’বছর দায়িত্বে থাকবেন মাহাথির।


মালয়েশিয়ার সাবেক এই উপ-প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম দেশবাসিকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, মালয়েশিয়ার জন্য এটা একটা নতুন ভোর।


জেল থেকে মুক্তির পর নিজের প্রথম সংবাদ সম্মেলনে দেশের জাতীয় রাজনীতিতে শিগগিরই তিনি ফিরে আসছেন না বলে আনোয়ার ইব্রাহিম ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, “হারবার্ড, জর্জটাউন এবং কয়েকটি মুসলিম দেশের সঙ্গে আলোচনার জন্য আমি কিছু সময় নিতে চাই। ফলে একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবেই ফিরে যেতে চাই।”


আনোয়ার ইব্রাহিম বলেন, “প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ এবং উপ-প্রধানমন্ত্রী ড. ওয়ান আজিজা দেশ চালাবেন এবং তাদের প্রতি আমার পূর্ণ আস্থা রয়েছে।” 


মুক্তির পর ৭০ বছর বয়সী আনোয়ার ইব্রাহিম দেশটিতে সার্বিক সংস্কারে সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, মানুষ পরিবর্তন চেয়েছে এবং আমাদেরকে পরিবর্তনের ম্যান্ডেট দিয়েছে। আর এটাই পরিবর্তনের সময়।


এমবি    

Print