বিচার বহির্ভূত হত্যার কারণ মানুষ জানতে চায় : এরশাদ

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
২২ মে, ২০১৮ ০১:২৩:২১
#

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, গত ৩-৪ মাসে দেশে ৭২টি বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। অথচ প্রতিটি মানুষের ছিলো বিচার পাওয়ার অধিকার।


জাতি আজ জানতে চায় কেনো এই বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড। তিনি বলেন, ব্যাংকে টাকা নেই। এর হিসেবও নেই। টাকাগুলো গেলো কই? কে দেবে এর হিসেব!


সোমাবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাপা ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আয়োজিত ইফতার মাহফিলের পূর্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপির সভাপতিত্বে জহিরুল আলম রুবেলের পরিচালনায় আলোচনা সভায় দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এমপি, অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


এরশাদ বলেন, রমজান মাস আসলেই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মুল্য বৃদ্ধি হয়। অতি মুনাফার জন্য ব্যবসায়ীরা মানুষের রক্ত শোষণ করে। অথচ পৃথিবীর সকল রাষ্ট্রেই পবিত্র এ রমজান মাসে সরকারসহ সকল ব্যবসায়ীরা ভূর্তকি দিয়ে থাকেন।


শুধু আমরাই ব্যতিক্রম। তিনি বলেন, আমাদের নো ম্যানস ল্যান্ডে এখনও সাড়ে ৪লাখ মিয়ানমানের রোহিঙ্গারা মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তারা ইফতার ও সেহেরি ঠিকমত করেছে কিনা তার খোজ কেউ রাখে না। তিনি তাদেরকেও বাংলাদেশে নিয়ে আশার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।


সাবেক এ রাষ্ট্রপতি বলেন, ব্যাংকে টাকা নেই। এর হিসেবও নেই। টাকাগুলো গেলো কোথায়? কে দেবে এর হিসেব! অনেকেরই বিদেশে ৪-৫ বাড়ি। অথচ দেশের মানুষ ঠিকমত খেতে পারছে না। দেশের সর্বত্রই এ বৈষম্য। এ বৈষম্য দুরকরন করতে হলে দেশবাসিকে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় বসাতে হবে। আর জাতীয় পার্টি ক্ষমতা নিতে প্রস্তুত। এএস

Print