সেহরির সময় গান গেয়ে ডেকে তোলায় ৬ ফিলিস্তিনি আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৩ জুন, ২০১৮ ১৫:১৪:৪০
#

রমজান মাসে রাতে সেহরি খাওয়ার জন্য রোজাদারদের জাগানোর সংস্কৃতি মুছে ফেলার তৎপরতা শুরু করেছে ইসরাইল।


সেহরির সময় গান গেয়ে রোজাদারদের জাগানোর কারণে চলতি রমজানে জেরুজালেমে ছয় ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী। খবর হারিটজ, পার্সটুডের।


সেহরির জন্য লোকদের ডেকে তোলার কাজ করা দলটিকে আরবি ভাষায় মুসাহারাতি বলা হয়। মুসাহারাতিদের বাদ্য বাজিয়ে লোক ডেকে তোলার ঘটনায় ওল্ড সিটির মুসলিম অধ্যুষিত অংশের ইহুদি বাসিন্দারা শব্দদূষণের অভিযোগ করেছে।


গান গেয়ে ও বাদ্য বাজিয়ে সেহরি ও নামাজ পড়ার জন্য মুসলিম বিশ্বাসীদের ডেকে তোলা আরবের এই অঞ্চলের একটি ঐতিহ্য। তবে এ বছরের রমজানের আগ পর্যন্ত কেউই মুসাহারাতিদের নিয়ে অভিযোগ তোলেনি। তবে চলতি বছর এই প্রথমবারের মতো বাসিন্দাদের অভিযোগের ভিত্তিতে মুসাহারাতিদের জরিমানা করছে পুলিশ। একইসঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের আটক করা হয়েছে।


ওল্ড সিটির সাদিয়া এলাকায় তিন বছর ধরে মুসাহারাতি হিসেবে আছেন মোহাম্মদ হাজাজি। এর আগে তিনি আগের মুসাহারাতির সঙ্গে মিলে আট বছর লোকজনকে সেহরির সময় ডেকে তোলার কাজ করেছেন। তিনি বলছেন, এর আগে পুলিশ আমাদের কখনও হয়রানি করেনি। ওল্ড সিটিতে গান ও বাদ্য বাজিয়ে লোকজনকে ডেকে তুলছে মুসাহারাতিদের একটি দল


হাজাজি বলেন, আমাদের এলাকায় তিনটি ইহুদি পরিবার রয়েছে। একটি নতুন এবং দুটি পুরনো। পুলিশ আমাদের জানিয়েছে ওই পরিবারগুলো তাদের বাড়ির সামনে শব্দ না করতে অভিযোগ দিয়েছে। কিন্তু ডেকে তোলার এই পুরো প্রক্রিয়াটি প্রায় ২০ মিনিট স্থায়ী, তার বাড়ির বাইরে এই পরিমাণটা কয়েক সেকেন্ডের মতো। আমাকে বলা হয়েছে প্রথমবারের অভিযোগের জন্য ৪৫০ শেকেল (১২৬ ডলার) জরিমানা গুণতে হবে। দ্বিতীয়বারের জন্য ১০০০ শেকেল এবং পরবর্তী সময়ের জন্য ১০০০ শেকেল।


এদিকে, অধিকৃত অঞ্চলে মাইকে আজান নিষিদ্ধের বিষয়ে একটি নতুন কমিটি গঠন করেছে। এই বিলটি পাস হলে ফিলিস্তিনি মুসলমানরা সেখানে মাইকে আজান দিতে পারবেন না। একটি মুসলিম ভূখণ্ডে আজান নিষিদ্ধের এ তৎপরতার নিন্দা জানিয়েছেন ফিলিস্তিনি নেতারা।


জেড

Print