বগুড়া ও রংপুরে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
০৫ জুন, ২০১৮ ১৭:২০:৪৫
#

বগুড়া ও রংপুরে পুলিশের সঙ্গে তথাকথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছে।  


সোমবার (০৪ জুন) দিনগত রাত ২টার দিকে বগুড়া শহরের মাটিডালী এলাকায় ও রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’র ঘটনা ঘটে।   


রংপুর: গত ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ পৌর এলাকার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ছোটপুল বানুপাড়ায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম দবির ওরফে দবিরুল (৫০)। তিনি পৌর এলাকার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের চেংটারী গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে। পুলিশের দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে।


রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল-এ) সাইফুর রহমান জানান, মাদক ব্যবসায়ীরা হারাগাছ পৌর এলাকার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ছোটপুল বানুপাড়ায় অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় ‘মাদক ব্যবসায়ীরা’।


এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে শাহজাহান হোসেন দবির ওরফে দবিরুল মারা যান এবং অন্যান্য মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যান। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি দেশীয় তৈরি পিস্তুল, ১২৬ পিস ইয়াবা, ১৭৩ বোতল ফেনসিডিল ও ৩টি ছোড়া উদ্ধার করেছে বলে জানান পুলিশ সুপার।    


বগুড়া: শহরতলীর মাটিডালীয় গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে লিটন ওরফে রিগেন (৩২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।


সোমবার (০৪ জুন) দিনগত রাত ২টার দিকে শহরতলীর মাটিডালী এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’র ঘটনা ঘটে।  


লিটন চকসূত্রাপুরের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে। বর্তমানে তিনি ফুলবাড়ি মধ্যপাড়ায় বাস করছিলেন। ডিবির দাবি, লিটন এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে থানায় ৫টি মাদকের মামলা রয়েছে।


বগুড়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) সনাতন চক্রবর্তী জানান, রাতে একদল মাদক ব্যবসায়ী মাটিডালী বিমান মোড়ের পাশে কমার্স কলেজ সংলগ্ন এলাকায় মাদকের চালান হাতবদল করছে-এমন সংবাদে ডিবি পুলিশ অভিযানে যায়। উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে মাদক কারবারিরা গুলি ছোড়ে।


পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে মাদক কারবারিরা পিছু হটলে লিটনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।  ঘটনাস্থল থেকে ২টি চাপাতি ও ২০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।  


পুলিশ সুপারের দাবি, ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডিবি পুলিশের কনস্টেবল মিন্টু ও কালাম আহত হয়েছেন। তাদের পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।


এমবি          

Print