ধর্ষণের পর মরদেহ পুকুরে ফেলে দেয়ার অভিযোগ | timenewsbd.com

ধর্ষণের পর মরদেহ পুকুরে ফেলে দেয়ার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১০ জুন, ২০১৮ ১৫:১৩:২৩
#

লক্ষ্মীপুরে আসমা আক্তার(১৪) নামে এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে দেয়ার অভিযোগ করেছে তার পরিবার।


শনিবার রাত দেড়টার দিকে বাড়ির পাশে পুকুর থেকে বিবস্ত্র অবস্থায় আসমা আক্তারকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।


হাসপাতাল ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় শাকচর গ্রামের বাসিন্দা ফয়েজ আহমদের মেয়ে আসমাকে বাড়িতে রেখে তার মা তার বাবার কর্মস্থলে (ফেনী) যান। এসময় আসমাকে দেখভালের জন্য তার নানু হালিমা বেগমকে দায়িত্ব দিয়ে যান তার মা। শনিবার সন্ধ্যার পর আসমাকে নিজ বাড়িতে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করেন তার স্বজনরা। পরে রাতে বাড়ির পাশের পুকুরে বিবস্ত্র অবস্থায় তার মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা এসে আসমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


নিহতের মামা মো. হানিফ ও নানু হালিমা বলেন, বিবস্ত্র অবস্থায় পুকুর থেকে আসমার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তাকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়েছে।


সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জয়নাল আবদীন বলেন, আসমাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে ধর্ষণ হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।


জেড

Print