'এরদোগানের সঙ্গে ওজিলের সাক্ষাতের ব্যাখ্যা দিতেই হবে’

স্পোর্টস ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৯ জুলাই, ২০১৮ ১৬:১১:৫৪
#

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের সঙ্গে মেসুত ওজিলের সাক্ষাতের বিষয়ে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ডিএফবি)।


ডিএফবি প্রেসিডেন্ট রেইনহার্ড গ্রিন্ডেল বলেছেন, এরদোগানের সঙ্গে সাক্ষাতের ব্যাখ্যা দিতেই হবে ওজিলকে। এর ওপর ভিত্তি করেই তার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।


গত মাসের শুরুর দিকে তুর্কি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাত করেন জার্মান দলের জনপ্রিয় ফুটবলার মেসুত ওজিল ও ইকাই গুন্দোগান। বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণার একদিন আগে তাদের ফটোশ্যুটের ছবি ছড়িয়ে পড়লে জার্মানির গণমাধ্যম তাদের নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন তোলে। দলের এ গুরুত্বপূর্ণ দুই খেলোয়াড়কে বাদ দিতে বিভিন্ন মহল থেকে চাপ তৈরি করা হয়।


তবে বিশ্বকাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ আসরে এই গুরুত্বপূর্ণ দুই খেলোয়াড়কে বাদ দিতে চাননি জার্মান কোচ জোয়াকিম লো। তার দৃঢ়তায় শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দলে তারা খেলার সুযোগ পান।


পরে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেন ওজিল-গুন্দোগান। তারা জানান, এরদোগানের সঙ্গে সাক্ষাত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ছিল না।


তবে জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (ডিএফবি) প্রেসিডেন্ট গ্রিন্ডেল বলেছেন, বিষয়টি সেখানেই চুকে যায়নি। এ নিয়ে ওজিলকে অবশ্যই ব্যাখ্যা দিতে হবে। গুন্দোগানকে ক্ষমা করে দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।


কিকারকে গ্রিন্ডেল বলেন, বিশ্বকাপ থেকে দেশে ফিরলেও এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানায়নি ওজিল। অথচ তা নিয়ে ভক্ত-সমর্থকদের মাঝে বিপুল পরিমাণ ক্ষোভ আছে। তারা এরদোগানের সঙ্গে তার সাক্ষাতের বিষয়ে আরো জানতে চায়। সুতরাং তাকে ব্যাখ্যা দিতেই হবে। আশা করি, শিগগির এ নিয়ে নিজের অবস্থান তুলে ধরবেন ওজিল এবং তা প্রকাশ্যেই। সে নির্দোষ প্রমাণিত হবে বলে আমার বিশ্বাস।


এবারের বিশ্বকাপটা দুঃস্বপ্নের মতো গেছে জার্মানির। গ্রুপর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয়েছে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। এখন ব্যর্থতার সব দায়ভার মুসলিম খেলোয়াড় ওজিলের ওপর চাপানো হচ্ছে!


ওজিল বিরোধীদের দাবি, কয়েকজনকে নিয়ে গ্রুপ করে দলের মাঝে বিভাজন সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। মাঠের খেলাতেও এর প্রমাণ মিলেছে। ওজিল ও তার সমর্থক সতীর্থরা নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেননি।

Print