জাদুঘর হবে সেই থাই গুহা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১৩ জুলাই, ২০১৮ ১৩:৫৭:১৮
#

জাদুঘরে রূপান্তর করা হবে থাইল্যান্ডের সেই গুহাকে। ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচের উদ্ধারের পর থাম লুয়াং গুহাটিকে জাদুঘরে পরিণত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। উদ্ধার অভিযান কিভাবে চালানো হয়েছে তা ওই গুহা জাদুঘরে প্রদর্শন করা হবে।


এটাকে থাইল্যান্ডের পর্যটনের একটি ‘বড় আকর্ষণে’ পরিণত করাই তাদের লক্ষ্য। গুহায় উদ্ধার অভিযানের গল্প নিয়ে ইতিমধ্যে একটি সিনেমা নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। হলিউডের অন্ততপক্ষে দুটি ফিল্ম কোম্পানি যৌথভাবে এ পরিকল্পনা করেছে। খবর বিবিসির।


থাম লুয়াং গুহাটি থাইল্যান্ডের সবচেয়ে বড় গুহাগুলোর মধ্যে অন্যতম। গুহাটি মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ চিয়াং রাইয়ে অবস্থিত। এখানকার ছোট শহর মায়ে সাইকে ঘিরে থাকা পর্বতের নিচে গুহাটির অবস্থান।


পর্যটনের সীমিত সুযোগ-সুবিধা থাকা ওই এলাকাটি অনেকটাই অনুন্নত। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে সাবেক গভর্নর ও উদ্ধার অভিযানের প্রধান নারংসাক ওসোত্তানাকর্ন বলেছেন, ‘অভিযান কিভাবে করা হয়েছিল তা দেখাতে এলাকাটিকে প্রাকৃতিক জাদুঘরে পরিণত করা হবে। এটি থাইল্যান্ডের আরেকটি বড় আকর্ষণ হয়ে উঠবে।’


পর্যটকদের সুরক্ষার জন্য গুহার ভেতরে ও বাইরে পূর্বসতর্কতামূলক বিভিন্ন ব্যবস্থাও গ্রহণ করতে হবে বলে জানিয়েছে থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান ওচা। জাদুঘরটি বছরজুড়ে চালু থাকবে কিনা তা পরিষ্কার হয়নি। কারণ জুন থেকে অক্টোবর পর্যন্ত থাইল্যান্ডে বর্ষাকাল।


এ সময় দেশটিতে প্রায়ই ব্যাপক বন্যা হয়ে থাকে। এই বর্ষাকালের ভারি বৃষ্টিপাতেই গুহাটির ভেতর ঘুরতে থাকা ওই কিশোরের দল ভেতরে প্রবেশ করা পানিতে রাস্তা বন্ধ হয়ে আটকা পড়েছিল।


২৩ জুন আটকা পড়ার নয় দিন পর দুই ব্রিটিশ ডুবুরি গুহার প্রায় ৪ কিলোমিটার ভেতরে ওই কিশোরদের সন্ধান পান। আটকা পড়ার ১৭ দিন পর গুহাটি থেকে ওই ১২ কিশোরকে তাদের কোচসহ বের করে আনা হয়। থাইল্যান্ডের চিয়াং রাই প্রদেশের ওই গুহায় দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে আটকে থাকার গত মঙ্গলবার ফুটবল দলটিকে উদ্ধার করা হয়।


তাদের এখন হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। সর্বশেষ প্রকাশিত একটি ভিডিওতে হাসপাতালের বেডে বসা ও শোয়া অবস্থায় তাদের দেখা গেছে। তাদের শারীরিক অবস্থা ভালো আছে এবং ভিডিওতে তাদের উৎফুল্লও দেখা গেছে।


এমআর

Print