মুশফিকের দারুণ সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ

খেলা ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০২:৩৯:৫৩
#

প্রথম ওভারেই ওপেনার লিটন দাস এবং ওয়ানডাউনে নামা সাকিব আল হাসানের উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। হাতে ব্যথা পেয়ে কিছুক্ষণ পর সাজঘরে ফিরে যান আরেক ওপেনার তামিম ইকবাল।


এশিয়া কাপের উদ্বোধনী দিনে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে লাল-সবুজের দলের শুরুর এই বিপর্যয় শেষ পর্যন্ত কাটিয়ে উঠেছিল মুশফিকুর রহিম এবং মোহাম্মদ মিঠুনের দৃঢ়তায়। বড় সংগ্রহের পথও দেখিয়েছিল তারা। কিন্তু মিঠুনের আউটের পরই যেন বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে মড়ক লাগে। আসা-যাওয়া ব্যস্ত হয়ে পড়েন ব্যাটসম্যানরা।


আজ শনিবার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে অবশ্য এক পাশ আগলে রেখেছেন মুশফিক। ওয়ানতে ষষ্ঠ শতক করে দলকে একটি চ্যালেঞ্জং সংগ্রহ দিয়েছেন তিনিই। বাংলাদেশ করে ২৬১ রান। 


মুশফিক ১৪৪ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলেন। যাতে বল খেলেছেন ১৫০টি। আর ১১টি চার ও চারটি ছক্কার মার দিয়ে ইনিংসটাকে সাজিয়েছেন তিনি।   


এর আগে ম্যাচের প্রথম ওভারেই লঙ্কান বোলিং তোপে পড়ে বাংলাদেশ। লাসিথ মালিঙ্গার সে ওভারের চতুর্থ বলে ওপেনার লিটন দাস স্লিপে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান কোনো রান না নিয়েই। ওয়ানডাউনে নামা সাকিব আল হাসান পরের বলেই আউট হন শূন্য রানে।  


বাংলাদেশ দলের জন্য হতাশার খবর হাতে ব্যথা পেয়ে ওপেনার তামিম ইকবালও ফিরে যান সাজঘরে। পেসার সুরাঙ্গা লাকমলের বল তাঁর গ্লাভসে লাগে। ব্যথা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় এই বাঁহাতি ওপেনারকে।


এরপর দলীয় ১৩৪ রানের মাথায় ৬৮ বলে ৬৩  রান করে মিঠুন সাজঘরে ফিরেন। আর মাহমুদউল্লাহ চার বলে ১ রান করে আউট হন।  সৈকতও আউট হন ১ রান করে।


এর পরই দলের বিপর্যয় এড়াতে দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন মুশফিকুর রহিম। তরুণ মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে লড়ে যান এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান।


দীর্ঘদিন পর শ্রীলঙ্কার হয়ে ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নেমে পেসার লাসিথ মালিঙ্গা ছিলেন দারুণ উজ্জ্বল। ১০ ওভারে মাত্র ২৩ রান দিয়ে চার উইকেট তুলে নেন তিনি।


 

Print