সৃষ্ট জটিলতায় বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

বেনাপোল করেসপন্ডেন্ট
টাইম নিউজ বিডি,
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০৬:৫৬
#

এক দিনের ব্যাবধানে আবারও ভারত ও বাংলাদেশ( দু দেশের) বন্দর ব্যাবহারকারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ফলে বেনাপোল-পেট্টাপোল বন্দর দিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য আমদানি রফতানি বানিজ্য বন্ধ হয়ে গেছে। এর ফলে দুপার বন্দর সড়কে আটকা পড়েছে হাজাও পন্যবাহি ট্রাক। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পচনশীল পন্য। বুধবার বিকাল থেকে বন্ধ হয়ে যায় আমদানি রফতানি। তবে সৃষ্ট সমস্যার সমাধানে দু দেশর বন্দর সিএন্ডএফ ও ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা চেষ্টা চালাচ্ছেন, চলছে বৈঠক।


বেনাপোল স্থল বন্দর পরিচালক আমিনুল ইসলাম ও সিএন্ডএফ কর্মকর্তারা জানান, সোমবার রাতে বেনাপোল বন্দরে এক ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভারকে লাঞ্ছিত করা হয়। এবং সিএন্ডএফ কর্মচারীদের দাবীকৃত বকশিষের ঘটনায় মঙ্গলবার সকাল থেকে বন্ধ হয়ে যায় আমদানি রফতানি। এদিন বিকালে দুদেশের বন্দর প্রশাসন ও সিএন্ডএফ নের্তৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে সন্ধা থেকে শুরু হয় আমদানি রফতানি। অফিসিয়াল কাজে বুধবার দুপুরে বেনাপোল এম আর টি ফ্রেস সিষ্টেম এর প্রতিনিধি শাহ আলম ভারতের পেট্টাপোল বন্দরে যায়। এসময় ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভাররা তাকে বেদম মারপিট করে। প্রতিবাদে আমদানি রফতানি বন্ধ করে দেয় তারা। পরে বিষয়টি সুরাহে ভারতের বনগাও পেট্টাপোল বন্দর ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করলে সিএন্ড¦ফে কর্মচারীরাও তাকে মারপিট করে । ফলে বন্ধ হয়ে যায় দু দেশের মধ্যে আমদানি রফতানি।


ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন বন্দর পরিচালক আমিনুল ইসলাম ও ভারতের বনগাও ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক প্রভাষ পাল।


শেখ নাছির উদ্দিন/এসএম

Print