পেঁয়াজ, ইক্ষু, নারকেলের ভেতর অভিনব কায়দায় ইয়াবা পাঁচার

টাইম ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৮:২৩:৩৩
#

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখকে ফাঁকি দিতে এবার ব্যাডমিন্টনের রেকেট ( racket), বাবুর্চির চামচ, কোমরের বেল্ট, মসলার কৌটা, এমনকি পেঁয়াজ, ইক্ষু, নারকেলের ভেতর করে পাচার করা হচ্ছে ইয়াবা। আর মানব শরীরও বাদ যাচ্ছে না ইয়াবা পাচারের পন্থা থেকে। এসব অপ্রচলিত পন্থা ব্যবহারের ফলে কোনভাবেই ইয়াবার পাচার রোধ করতে পারছে না আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এ অবস্থায় কুকুরের মাধ্যমে তল্লাশি চালাতে ক্যানান স্কোয়াড গঠনের প্রস্তুাব দিয়েছে সিএমপি।


গত চারমাসের বেশি সময় ধরে ইয়াবার বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে দু'শর বেশি মাদক ব্যবসায়ী।

কিন্তু তারপরও ইয়াবার পাচার কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্য মতে, ইয়াবার ব্যবসা এখন বৃহত্তর চট্টগ্রামের পাচারকারীদের কাছে সবচে লোভনীয় পেশা।

চট্টগ্রাম মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর উপ পরিচালক শামীম আহমেদ বলেন, 'টেকনাফ থেকে কিনবে ২০ টাকা চট্টগ্রাম আসলে হয়ে যায় ৮০ টাকা। ঢাকা গেলে হয়ে যায় ২০০ টাকা। এই যে টাকার জ্যামিতিক হারে বৃদ্ধি এই লোভ ত্যাগ করতে পারছে না মানুষ।'

সিএমপি অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আমেনা বেগম বলেন, 'খুব কম জায়গায় অনেক লক্ষ ইয়াবা আনা যায়। এমনভাবে ইয়াবা আনা হয় আমাদের পক্ষে শনাক্ত করে বের করা কষ্টকর হয়ে যায়।'

বর্তমানে ইয়াবার ব্যবহার মারত্মক অবস্হায় পৌঁছেছে। তাই ব্যবহারকারী কমানো না গেলে ইয়াবার বিস্তার রোধ সম্ভব নয় বলে মনে করছেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ ডা. সেলিম জাহাঙ্গীর।


তিনি বলেন, 'অ্যান্টি ইয়াবা ক্যাম্পিং করতে হবে প্রত্যেকটা স্কুলে। এবং এটা বাধ্যতামূলক করতে হবে।'

গত এক মাসে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অন্তত ১৫ উপায়ে বিভিন্ন জিনসপত্রের মধ্যে ইয়াবা পাচারের রহস্য উন্মোচন করেছে।

এ অবস্থায় পাচার রোধে চেকপোষ্টগুলোতে কুকুরের মাধ্যমে তল্লাশীর জন্য ক্যানান স্কোয়াড গঠনে ব্যবস্থা নিতে পুলিশ হেডকোয়ার্টারে চিঠি দিয়েছে সিএমপি।

সিএমপি অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আমেনা বেগম বলেন, 'কুকুরের মাধ্যমে তল্লাশীর জন্য ক্যানান স্কোয়াড গঠনে ব্যবস্থা নিলে আমরা বেশি করে শনাক্ত করতে সক্ষম হবো।'

গত চার মাসে বৃহত্তর চট্টগ্রামে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে জব্দ হয়েছে এক কোটি পিসের বেশি ইয়াবা। আর ইয়াবা পাচারের সময় আটক করা হয়েছে অন্তত তিনশ পাচারকারীকে।


এসএম

Print