মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন করে হত্যা, আটক ১৫

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ২২:১৮:০৬
#

চুরি যাওয়া ও ছিনতাইকৃত মোবাইল সেটের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে হত্যা, মুক্তিপণ আদায়, অপহরণ, মাদক চোরাচালান ও জঙ্গিবাদের মতো গুরুতর অপরাধের সাথে জড়িত চক্রের ১৫ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৩। রাজধানীর গুলিস্তান এলাকার বিভিন্ন মোবাইল মার্কেটে অভিযান চালিয়ে জব্দ করা হয় পাঁচ শতাধিক চোরাই মোবাইল।


সোমবার রাতে রাজধানীর গুলিস্তানের পাতাল মার্কেট ও হকি স্টেডিয়াম মার্কেটের বিভিন্ন দোকানে অভিযান চালায় র‌্যাব-৩ এর একটি দল। এসময় সেখানকার কয়েকটি দোকানে তল্লাশি চালিয়ে পাঁচ শতাধিক চোরাই মোবাইল উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাব জানতে পায়, চুরি যাওয়া মোবাইল কম দামে কিনে বিশেষ ডিভাইস ব্যবহার করে আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করা হতো এসব দোকানে। পরবর্তীতে অপরাধীচক্রের কাছে চড়া দামে বিক্রি করা হতো এসব অবৈধ মোবাইল সেট।

র‌্যাব-৩ এর সিইও বলেন, 'টোটাল ১১টি  দোকানে আমরা অভিযান পরিচালনা করি। ফেলকন, জেট-৩, সিগমা, জেকেএফ এধরনের ডিভাইসের সঙ্গে তারা আন্তর্জাতিক সিম ব্যবহার করে। স্ক্রিনের মধ্যে তার যে আইএমইআইয়ের পরিবর্তন করতে চায়, তখন মডেল ও ব্র্যান্ড নাম্বার দেয়। আইএমই পাল্টালে শনাক্ত করা সমস্যা হয়ে যায়।'

আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করার ফলে এসব অপরাধীদের সনাক্ত করা সম্ভব নয়। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে হত্যা, জঙ্গিবাদ, অপহরণের মতো গুরুতর অপরাধ পরিচালনা করতে অপরাধী চক্রটি। এছাড়া অত্যাধুনিক ডিভাইসে বিভিন্ন দেশের সিম ব্যবহার করেও মাদক চোরাচালানসহ বিভিন্ন অপরাধ পরিচালনা করতো অপরাধী চক্রটি।

তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন সময় আমরা যে সন্ত্রাসীদের ধরে থাকি, দেখি তাদের মোবাইলের আইএমইআইতে ঝামেলা আছে। তখন থেকেই আমরা এর সূত্র খুঁজতে শুরু করি।' 

আটকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার পাশাপাশি এর পেছনে আরো কারা জড়িত তা বের করতে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে যাচ্ছে বলে র‌্যাব।


এসএম

Print