আটক সাংবাদিকদের ছাড়তে সুচি'কে ৫০টি সংগঠনের আহবান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৮ নভেম্বর, ২০১৮ ১৭:২১:১১
#

আটক রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে ছেড়ে দিতে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সুচি'র প্রতি আহবান জানিয়েছে বিশ্বের ৫০টি আন্তর্জাতিক সংগঠন।


প্রায় পঞ্চাশের অধিক সংগঠনের সাক্ষরিত একটি পত্রের মাধ্যমে এই আহবান জানানো হয়।


এর আগে রাষ্ট্রিয় গোপনীয়তা ভঙ্গের অভিযোগে ব্রিটিশ উপনিবেশিক আইনে আটক রয়টার্সের দুই সংবাদিককে ৭ বছর করে জেল দেয় মিয়ানমারের আদালত।


রায়ের পর তাদের মুক্তির দাবিতে আদালতে করা আপিলের পরপরই গত সোমবার এ্কটি পত্রের মাধ্যমে সুচি'র প্রতি এই আহবান জানানো হয়।


আহবান জানানো আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলোর মধ্যে রয়েছে বিশ্ব মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। এছাড়া রয়েছে কমিটি টু প্রটেক্স জার্নালিস্ট, রিপোর্টার'স উইথআউট বর্ডার, ইন্টারন্যাশানাল প্রিডম অব জার্নালিস্ট, ইন্টারন্যাশানাল প্রেস ইনস্টিটিউট সহ অন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠন।


বিবৃতিতে আদালতের রায় প্রত্যাখ্যান করে কোন প্রকার শর্ত ছাড়া দুই সাংবাদিক ওয়া লোন ও কিউ সো'কে মুক্তি দেওয়া এবং স্বাধীন মত প্রকাশ বিরোধী আইন অতি শীঘ্রই সংশোধন করার আহবান জানানো হয়।


এতে সংগঠনগুলো আরো জানায়, মত প্রকাশের স্বাধীনতায় মিয়ানমার বিশ্বাস করলে সাংবাদিকদের কোন ভাবেই গ্রেফতার করা উচিত নয়। কিন্তু রয়টার্সের দুই সংবাদিককে গ্রেফতার করে তাদের বিচারও করা হয়েছে যেটা প্রথম থেকে প্রশ্নবিদ্ধ ছিল এবং এর সঠিক প্রমাণের অভাব ছিল। যার মাধ্যমে বুঝা যায় এটি একটি প্রহসনমূলক বিচার। তাই আমরা মিয়ানমারকে অনুরোধ জানাবো যেন দুই সাংবাদিককে কোন শর্ত ছাড়াই মুক্তি দেওয়া হয়।


পেন আমেরিকার (PEN America) সিইও জানান, মূলত মিয়ানমারে রাখাইন রাজ্যে মুসলমানদের ওপর নির্যাতনের সত্য প্রকাশ করতে গিয়ে সরকারের রোষানলে পড়ে এই দুই সাংবাদিক। কারণ বিচারকার্যে সরকারের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অকাট্য প্রমাণ উত্থাপন না করতে পারাটাই এর জীবন্ত প্রমাণ।

উল্লেখ্য, মিয়ানমার সীমান্তে সেনা চৌকিতে হামলার অভিযোগ এনে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলমানদের বর্বর নির্যাতন চালায় মিয়ানমার সেনারা। যেটাকে আন্তর্জাতিকভাবে সম্পূর্ণ মানবাধিকার লঙ্ঘন ও রোহিঙ্গারা জাতিগত নিধনের স্বীকার বলে অভিহিত করা হয়।


এদিকে গত বছরের আগস্ট মাসের পর থেকে মিয়ানমারে হত্যা, নির্যাতন ও বাড়িঘরে আগুনের ঘটনায় প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে আট লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। এছাড়া আগে থেকে রয়েছে প্রায় চার লাখ রোহিঙ্গা। সব মিলিয়ে ১২ লাখের মতো রোহিঙ্গার বসবাস বাংলাদেশে।


জেড

Print