গাইবান্ধা-৩ আসনে বৈধতা পেলেন জামায়াত নেতা

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
০৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৭:৪৫
#

নির্বাচন কমিশনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থিতা বহাল রাখার আবেদনের শুনানি শুরু হয় সকাল থেকে।


বৃহস্পতিবার সকালে, নির্বাচন ভবনের ১১তলায় শুনানির জন্য বসানো একটি এজলাসে কমিশনারদের উপস্থিতিতে এ শুনানি শুরু হয়। 


দিনভর বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা তাদের প্রার্থিতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে ভীড় জমান। বিকেল ৫টায় প্রথমদিনের শুনানি শেষ হয়। আপিল শুনানির এদিন বৈধ প্রার্থিতা পেয়েছেন গাইবান্ধা-৩ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী এবং জামায়াত নেতা মো: আবু জাফর।


এর আগে একই গ্রামে চার কুদ্দুসের ধাধায় মনোনয়ন বাতিল হয়েছিল জামায়াত নেতা মো: আবু জাফরের।


তদন্ত রিপোর্টে দেখানো হয় আবু জাফরের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে জমা দেয়া কুদ্দুসের স্বাক্ষর জাল। আসলে এই কুদ্দুস মারা গেছে।


কিন্তু আপিল শুনানিতে আবু জাফরের আইনজীবী অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান নির্বাচন কমিশনারদের জানান, আল্লাহর দুনিয়াতে আমার গ্রামে চারজন কুদ্দুস জীবিত আছেন। কেউ মরেনি। আমি প্রত্যেকের নাম ও ভোটার নম্বরসহ জমা দিয়েছিলাম। কিন্তু তদন্ত প্রতিবেদন বলছে কুদ্দুস মারা গেছে। তবে কোন কুদ্দুসকে তারা মৃত পেয়েছে এমন কোন তথ্য নেই।


সব কুদ্দুস এখনো জীবিত। কেউ মরেনি। অতএব আমার আপিল বিবেচনার অনুরোধ করছি।


পরে নির্বাচন কমিশনাররা সম্মিলিতভাবে সিদ্ধান্ত দেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাফরের পক্ষে।


কুদ্দুস জীবিত প্রমাণিত হওয়ায় মনোনয়ন বৈধ হয় আবু জাফরের।


এসএম

Print