সাংবাদিক আমানউল্লাহ কবিরের দাফন সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৪২:০৪
#

জামালপুরের মেলান্দহে মা-বাবার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সাংবাদিক আমানউল্লাহ কবির।


আজ (১৭ জানুয়ারি) বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় মেলান্দহ উপজেলার রেখিরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জানাজা শেষে তার মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।


গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় সাংবাদিক আমানউল্লাহ কবিরের মরদেহ জামালপুরে আনা হয়। এরপর তার মরদেহ জামালপুর প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে রাখা হয়। সেখানে গণমাধ্যমকর্মীরাসহ জেলার সর্বস্তরের মানুষ তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানান।


জানাজার নামাজের আগে মরহুমের বড় ছেলে ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের বার্তা প্রযোজক শাতিল কবির বাবার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে সবার কাছে দোয়া চান।


জানাজায় অংশ নেন- মরহুমের ভাই গণফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা নঈম জাহাঙ্গীর, সাবেক স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী সিরাজুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওয়ারেছ আলী মামুন,  মেলান্দহ উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান নুরুল আলম সিদ্দিক’সহ স্থানীয় রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতারা।


মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে ৭২ বছর বয়সী জ্যেষ্ঠ এ সাংবাদিকের জীবনাবসান হয়।


আমানুল্লাহ কবীর শেষ সময়ে অনলাইন গণমাধ্যম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের জ্যেষ্ঠ সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই ডায়াবেটিস ও লিভারের জটিলতায় ভুগছিলেন। অসুস্থতা নিয়ে দুই সপ্তাহ আগে শ্যামলীর ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক এই সভাপতি।


পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে ধানমণ্ডির ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে তাঁকে বিএসএমএমইউতে নেওয়া হয়।


আমানুল্লাহ কবীর ১৯৪৭ সালের ২৪ জানুয়ারি জামালপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক, দৈনিক আমার দেশের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারের বার্তা সম্পাদক ছিলেন।


এমবি  


 

Print