আইএসের খেলাফতের শতভাগ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছি: ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক
টাইম নিউজ বিডি,
০৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২১:০০:৫৪
#

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যতটা দ্রুত সম্ভব আগামী সপ্তাহের মধ্যেই ইসলামিক স্টেটের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকাগুলো শতভাগ উদ্ধারের ঘোষণা দেয়া হবে। আমরা তাদের খেলাফতের শতভাগ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছি।


সিরিয়া ও ইরাকে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করা ৭৯ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের এক সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকা তারা হাতছাড়া করেছে। এটি একটি বিশাল ঘটনা। এসব ভূমি এখন আর তাদের হাতে নেই।


সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণার পর নিজ দল রিপাবলিকান ও বিরোধী ডেমোক্র্যাটের সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। মার্কিন আইনপ্রণেতাদের আশঙ্কা, ইসলামিক স্টেট তাদের শক্তি পুনরুদ্ধার করবে।


যুক্তরাষ্ট্রের একজন শীর্ষ জেনারেল জোসেফ ভোটেল সিনেটে সাক্ষ্য দিতে গিয়ে বলেন, মার্কিন সেনা ফিরিয়ে আনার পর সেখানে নতুন করে আইএসের উত্থান ঘটতে পারে।


তবে সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেননি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বরং তিনি বলেন, সিরিয়ায় আমাদের সাহসি যোদ্ধাদের নিজ দেশে উষ্ণ অভ্যর্থনা দেয়ার প্রত্যাশায় আছি।


মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহুজাতিক জোটের শরিকদের ওই সম্মেলনে তিনি বলেন, সিরিয়া ও ইরাকে আইএসের নিয়ন্ত্রণে যাওয়া সব এলাকাগুলো মার্কিন সামরিক বাহিনী, আমাদের জোটের অংশিদার ও সিরিয়ার ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস কার্যত মুক্ত করেছে।


‘কাজেই এ সফলতার কথা যেকোনো সময় ঘোষণা করা হবে, সম্ভবত আগামী সপ্তাহে, যে আমরা তাদের খেলাফতের শতভাগ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছি,’ বললেন ট্রাম্প।


আইএস জঙ্গিরা ২০১৩ সালের পর সিরিয়া ও ইরাকের বিরাট অংশ দখলে নিয়ে খিলাফত প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেয়।


ওই এলাকায় গণহারে হত্যা-ধর্ষণ ও বিপুল ধ্বংসযজ্ঞ ঘটিয়ে তারা বিশ্বের বড় বড় শহরগুলোতে সন্ত্রাসী হামলা চালাতে শুরু করে। এতে সর্বত্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।


এ অবস্থায় ২০১৪ সালে এ জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামার সিদ্ধান্ত নেয় যুক্তরাষ্ট্র। তাদের নেতৃত্বে গঠিত হয় বহুজাতিক জোট। বর্তমানে প্রায় ৮০ দেশ এই জোটে যুক্ত আছে।


এমআর

Print