খেয়াঘাট স্থানান্তরে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দুই প্রতিমন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১৪ মার্চ, ২০১৯ ১৩:৫৫:০২
#

সদরঘাটের খেয়াঘাট স্থানান্তর নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিয়েছেন দুই প্রতিমন্ত্রী।


বুধবার (১৩ মার্চ) বিকেলে সদরঘাটে বুড়িগঙ্গা নদীতে ঘাট স্থানান্তর প্রক্রিয়া পরিদর্শনে যান নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এবং কেরানীগঞ্জের সংসদ সদস্য ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু।


সম্প্রতি সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় নৌকা ডুবে একই পরিবারের ৭ জনের মৃত্যুর জের ধরে সেখানে দুর্ঘটনা কমাতে খেয়াঘাটগুলো সরিয়ে নির্দিষ্ট একটি স্থানে নেয় বিআইডব্লিউটিএ।


মাঝিরা বিষয়টি মেনে নিলেও ইজারাদার ও ব্যবসায়ীরা এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে মঙ্গলবার (১২ মার্চ) সব পাইকারি মার্কেট ও নৌকা বন্ধ করে দেয়।


সঙ্কট সমাধানে বুধবার সদরঘাটে আসেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও কেরানীগঞ্জ পাড়ের স্থানীয় সংসদ সদস্য বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী। পরিদর্শন শেষে নসরুল হামিদ আগের নিয়মেই বিভিন্ন স্থানে ঘাট থাকার পক্ষে মত দেন।


জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ঘাট বন্ধ করে দিলে ব্যবসা বাণিজ্যের সমস্যা হবে। নতুন ঘাট নির্মাণ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এদিকে, নির্দিষ্ট ঘাটেই নৌকা ভেড়াতে হবে জানিয়ে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ব্যবসার চেয়ে মানুষের জীবন গুরুত্বপূর্ণ।


নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, যান্ত্রিক যুগে ম্যানুয়াল কোনো সিস্টেম থাকতে পারে না, এটা সাংঘর্ষিক। ঘাট এলোমেলো থাকবে না, পরিকল্পিত থাকবে। সদরঘাট কি অবস্থায় আছে তা বর্ণনা করার মতো না।


তবে দুই মন্ত্রীই স্বীকার করেন, সদরঘাটে শৃঙ্খলা ফিরে এলে নৌ দুর্ঘটনা অনেকাংশেই কমে আসবে।


 


এএস


 

Print