ডাকসুর কাজ কী?

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
২০ মার্চ, ২০১৯ ১৪:৫৭:০০
#

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ-ডাকসুর মূল কাজই হচ্ছে বক্তৃতা, বিতর্ক, অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজন আর সামাজিক সমাবেশ, পত্রিকা সরবরাহের মতো কিছু নৈমিত্তিক কাজ।


গঠনতন্ত্রে ৪টি লক্ষ্য উদ্দেশ্য ও আটটি কাজের মধ্যে এসব ছাড়াও কল্যাণমূলক কাজের মাধ্যমে সংসদের সদস্যদের সমাজসেবার মনোভাব জাগিয়ে রাখার কথা বলা আছে।


নির্বাচন শেষে এবার আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব নেয়ার পালা ডাকসুর নতুন নেতৃত্বের। দীর্ঘ ২৮ বছর পর নির্বাচন হওয়ায় অনেকেই জানেন না- ডাকসুর কাজ কী?


ডাকসুর গঠনতন্ত্রে চারটি লক্ষ্য উদ্দেশ্য ও আটটি কাজের কথা বলা আছে। এগুলো মধ্যে রয়েছে কমনরুম ব্যবস্থাপনা, আন্তঃক্রীড়াসামগ্রী, দৈনিক পত্রিকা ও সাময়িকী সরবরাহ, বছরে অন্তত একবার জার্নাল প্রকাশ করা, বির্তক প্রতিযোগিতা আয়োজন এবং শিক্ষা সম্মেলনে প্রতিনিধি পাঠানো।


প্রশাসন বলছে এগুলো নৈমিত্তিক কাজ। এসবের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে গণতান্ত্রিক আন্দোলনেও ডাকসু নেতৃত্বের সক্রিয় থাকা উচিত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ বলেন, 'এক সময় রাজনীতির জন্য ডাকসু কাজ করেছে। এখনো যদি দেশে কোনো অশুভ শক্তি আসে, কোনো সামরিক শাসন আসে বা কোনো সামাজিক অন্যায় শুরু হয় তবে ন্যায়ের সংগ্রামে তারা (ডাকসু) কাজ করবে।


আর সাবেক ভিপি মাহফুজা খানম বলছেন- দাবিদাওয়া আদায়ে শিক্ষার্থীদের পাশে থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে দেনদরবার করতে হবে ডাকসু নেতৃত্বকে।


মাহফুজা খানম বলেন, 'এখানে মূল কাজ হচ্ছে ছাত্রদের লেখাপড়ার বাইরে এক্সট্রা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটিসকে প্রোমট করা। ছাত্রদের অধিকার, থাকা খাওয়া, সুবিধা-অসুবিধা এসব বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষের সঙ্গে দেনদরবার করা।'


আগামী ২৩শে মার্চ ডাকসুর প্রথম কার্যকরি সভা বসবে। সেদিন থেকে ডাকসুর একবছর মেয়াদ গণনা করা হবে।


এসএম

Print