এখনও বেঁচে আছেন  সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ: মেয়ে নুসরাত

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
২২ এপ্রিল, ২০১৯ ০১:২৯:০৯
#

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও লেখক মাহফুজ উল্লাহ এখনও বেঁচে আছেন। তিনি থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন।


আজ (২১ এপ্রিল) রোববার সন্ধ্যায় মাহফুজ উল্লাহর মেয়ে নুসরাত হুমায়রা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ে।


নুসরাত মোবাইলে বার্তা সংস্থা ইউএনবিকে বলেন, “আমার বাবা এখনো বেঁচে আছেন। তবে তাঁর অবস্থা সংকটাপন্ন। গতকাল রাতে তাঁর শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হয় এবং চিকিৎসকরা তাঁকে ওষুধ দেওয়া বন্ধ করেন।”


নুসরাত বলেন, মাহফুজ উল্লাহর মৃত্যু নিয়ে গণমাধ্যমে যে খবর প্রকাশ হয়েছে তা সঠিক নয়।


“আমি তাঁর পাশেই রয়েছি। আমরা তাঁর শান্তিপূর্ণ প্রস্থানের অপেক্ষায় রয়েছি।” বলেন নুসরাত হুমায়রা।


এর আগে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সাবেক মহাসচিব এজেডএম জাহিদ পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে জানান, ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাহফুজ উল্লাহ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।


একই তথ্য জানিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার সাংবাদিকদের বলেন, সাংবাদিক, কলামিস্ট মাহফুজ উল্লাহ আজ আমাদের মাঝ থেকে চিরতরে বিদায় নিয়েছেন।


এমনকি সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহর মরদেহ কাল বা পরশু দেশে আনা হতে পারে বলে জানান তাঁর স্ত্রী।


ঢাকার বাসায় তিনি বলেন, “এখনো আমরা সঠিকভাবে জানি না তাঁর মৃতদেহ কবে আসবে। তাঁর মৃত্যু তো হয়েছে দেশের বাইরে। বাইরের প্রসেস তো একটু লং হয়। এটা কালকেও হতে পারে, পরশুও হতে পারে। আমরা যখনই ডেফিনিটলি জেনে যাব, আপনাদের আমরা জানাব।”


এদিকে মাহফুজ উল্লাহর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে বিকেলে বিবৃতি দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও  মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ নিয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠান বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।


সন্ধ্যার পর রিজভী আরেকটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন এবং তিনি মাহফুজ উল্লাহর দীর্ঘায়ু কামনা করেন।


বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “বিভিন্ন গণমাধ্যম থেকে আমরা জানতে পারি যে, দেশের বিশিষ্ট সাংবাদিক জনাব মাহফুজ উল্লাহ আজ ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। এই সংবাদের ওপর ভিত্তি করে বিএনপির পক্ষ থেকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের একটি শোকবার্তা বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো হয়। কিন্তু পরবর্তীতে জানা যায় যে, জনাব মাহফুজ উল্লাহ মৃত্যুবরণ করেননি, তবে তাঁর অবস্থা সংকটাপন্ন। এই অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলের জন্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছে। দোয়া করি-মহান রাব্বুল আলামিন যেন জনাব মাহফুজ উল্লাহকে দ্রুত সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু দান করেন।”


এমবি 

Print