ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয়ে সুবিধা পেলো বাংলাদেশ

টাইম ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১২ মে, ২০১৯ ১৭:২০:০৪
#

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সহজেই ৫ উইকেটে জিতে ফাইনালে খেলা নিশ্চিত করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই জয়ে কিছুটা সুবিধাই হয়েছে বাংলাদেশের। কারণ ম্যাচটিতে আয়ারল্যান্ড জিতলে তাদের পয়েন্ট হতো ৬। বাংলাদেশেরও সমান ৬ পয়েন্ট। তাই ফাইনালে ওঠা নিয়ে পরে কঠিন সমীকরণে পড়ে যেত লাল-সবুজের দল। এখন একটি ম্যাচ জিতলেই ফাইনালে উঠে যাবে বাংলাদেশ।


তবে এই ম্যাচে অ্যান্ডি বালবার্নির চমৎকার সেঞ্চুরির ওপর দারুণ জয় পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওপেনার সুনীল অ্যামব্রিসের চমৎকার ইনিংসের ওপর ভর করে ফাইনালে উঠে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


ডাবলিনে টস জিতে প্রথম ব্যাট করে আয়ারল্যান্ড ৩২৭ রান করে। ওপেনার পল স্টার্লিং ও তিন নম্বরে নামা বালবার্নির চমৎকার জুটির ওপর ভর করেই এই দারুণ সাফল্য পায় তারা। ১৪৬ রানের জুটি গড়েন স্টার্লিং-বালবার্নি। আটটি চার ও দুটি ছক্কায় ৯৮ বলে ৭৭ রান করে গাব্রিয়েলের বলে থামেন স্টার্লিং।


তবে অ্যান্ডি বালবার্নির ১২৪ বলে ১৩৫ রানের সুবাদে এই বিশাল সংগ্রহ পায় স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড। জবাবে অ্যামব্রিসের ব্যাটিং নৈপুণ্যে ১৩ বল বাকি রেখে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


বড় টার্গেটে ৭৬ বলে ৮৪ রান যোগ করেন দুই ক্যারিবীয় ওপেনার শাই হোপ ও সুনীল অ্যামব্রিস। আগের দুই ম্যাচেই সেঞ্চুরি করা হোপ আজ থামেন ৩০ রানে। হোপের ফিরে যাওয়ার পর ক্রিজে এসে বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হন ড্যারেন ব্রাভোও। ১৭ রানে শেষ হয় তার ইনিংস।


তবে তৃতীয় উইকেটে ১২৮ রানের বড় জুটি গড়েন অ্যামব্রিস ও রোস্টন চেজ। এর মধ্যে ৪৬ রান অবদান ছিল চেজের। চেজের বিদায়ের আগেই ওয়ানডে ক্যারিয়ারের চতুর্থ ম্যাচে প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ নেন অ্যামব্রিস।
৮৯ বলে সেঞ্চুরির পর মারমুখী মেজাজ অব্যাহত রেখে দলের জয়ের পথ সহজ রাখেন আ্যামব্রিস। তবে ১২৬ বলে ১৯টি চার ও একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ব্যক্তিগত ১৪৮ রান করেন তিনি।


৪০ ওভারে দলীয় ২৫২ রানে অ্যামব্রিসের বিদায়ের পর দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে গেছেন জনাথন কার্টার ও অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। কার্টার অপরাজিত ৪৩ ও হোল্ডার ৩৬ রান করেন। ম্যাচসেরা হয়েছেন অ্যামব্রিস। আগামী ১৩ মে বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


জেড

Print