খালিদ হোসেনের অবস্থার অবনতি

বিনোদন ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
২০ মে, ২০১৯ ১৮:৩৫:২০
#

একুশে পদক পাওয়া নজরুলসংগীতের বরেণ্য শিল্পী, গবেষক, স্বরলিপিকার ও সংগীতগুরু খালিদ হোসেনের শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন। আজ সোমবার জানা গেছে, তাঁর অবস্থার অবনতি হয়েছে, তেমন সাড়া দিচ্ছেন না। অনেক বছর যাবৎ তিনি হৃদ্‌রোগে ভুগছেন। তাঁর কিডনি প্রায় অকার্যকর হয়ে পড়েছে।


ফুসফুসেও সমস্যা হচ্ছে। পাশাপাশি রয়েছে বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন সমস্যা। তিনি এখন রাজধানীর জাতীয় হৃদ্‌রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে করোনারি কেয়ার ইউনিটের (সিসিইউ) ৯ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন। তাঁর বয়স ৮৪।


আজ সকালে খালিদ হোসেনের ছেলে আসিফ হোসেন বলেন, ‘আমাদের বলতে খুব কষ্ট হচ্ছে, চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন সবকিছুর জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে। তবে আমরা হাল ছাড়ছি না, তাঁর সুস্থতার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করছি। এর আগে একাধিকবার বাবার খুব খারাপ অবস্থা হয়েছিল এবং চিকিৎসকেরা আমাদের একই কথা বলেছিলেন। তারপরও বাবা সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরে গেছেন। এবারও আমরা তেমনটাই আশা করছি।’


হাসপাতালে আজ সকালে খালিদ হোসেনের ইকোকার্ডিওগ্রাম করা হয়েছে। এরপর হঠাৎ তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়।


এর আগে আসিফ হোসেন বলেছেন, ‘বাবাকে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য প্রতি মাসেই হাসপাতালে আনা হয়। তখন দুই-তিন দিন তিনি হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি থাকেন। এবারও ৪ মে ভর্তি করা হয়েছে। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকেরা বাবাকে আর ছাড়েননি। চিকিৎসকদের কাছ থেকে যতটুকু জানতে পেরেছি, বাবার অবস্থা এখন একেবারই খারাপ।’


খালিদ হোসেনের চিকিৎসার সহায়তার জন্য এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে আর্থিক অনুদান দেওয়া হয়েছে। আসিফ হোসেন বলেন, ‘অনেক আগে বাবাকে এই সহযোগিতা দেয়া হয়েছিল। এখন তাকে প্রতি মাসে একটা ইনজেকশন দেওয়া হয়। এর জন্য সব মিলিয়ে এক লাখ টাকার ওপরে খরচ হচ্ছে। তা ছাড়া অন্যান্য চিকিৎসা খরচ তো রয়েছেই।’


খালিদ হোসেনের জন্য তার পরিবারের পক্ষ থেকে সবার কাছে দোয়া চাওয়া হয়েছে।

Print