সুদানে সহিংসতায় ৩৫ বিক্ষোভকারী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৪ জুন, ২০১৯ ১৮:২৩:৩০
#

সুদানের বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, রাজধানী খার্তুমে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা তাদের বিক্ষোভ ক্যাম্পে ঢুকে সহিংসতা চালালে কমপক্ষে ৩৫ জন নিহত হয়েছে।


দেশটির প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশিরকে ক্ষমতাচ্যুত করার এটিই সবচেয়ে ভয়াবহ সহিংসতার ঘটনা। খবর আল-জাজিরার।


সুদানিজ প্রোফেসনালস অ্যাসোসিয়েন (এসপিএ) জানিয়েছে, সোমবারের ওই অভিযান একটি ‘রক্তাক্ত হত্যাকাণ্ডের’ সমান। গত বছরের ডিসেম্বর মাসে সুদান জুড়ে বিক্ষোভ শুরু করার পেছনে মূল ভূমিকা পালন করে এসপিএ।


এসপিএ বলছে, সোমবার সকালে যা ঘটেছে তার জন্য ট্রানজিশনাল মিলিটারি কাউন্সিল (টিএমসি)-কে দায়ী। ওমর আল-বশিরকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর বর্তমানে সুদানের শাসন ক্ষমতা পরিচালনা করছে টিএমসি।


এদিকে সুদানের গণতন্ত্রপন্থি নেতারা রাতের মার্চে অংশ নিতে এবং ‘সার্বিক সরকারি অবাধ্যতার’ অংশ হিসেবে প্রধান সড়ক ব্লক করে দেশজুড়ে ‘জনজীবন স্থবির’ করার আহ্বান জানিয়েছে।


বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ডাক্তারদের একটি সোমবার এক ফেসবুক পোস্টে জানায়, নিহতের সংখ্যা ৩৫-এ দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে একজন শিশুও রয়েছে বলে জানায় তারা।


অন্যদিকে টিএমসি-র প্রধান জানিয়েছেন, তারা প্রধান বিরোধী জোটের সঙ্গে করা সব ‍চুক্তি বাতিল করছে। একই সঙ্গে আগামী নয় মাসের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনার দিকে এগোবে তারা।


খার্তুমে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বাইরে বিক্ষোভকারীদের সরাতে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলি ছোড়ার পর মঙ্গলবার এই ঘোষণা দেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান।


টেলিভিশনে দেয়া বিবৃতিতে বুরহান বলেন, মিলিটারি কাউন্সিল অ্যালায়েন্স ফর ফ্রিডম অ্যান্ড চেঞ্জ (বিক্ষোভকারীদের পক্ষে আলোচনাকারী গ্রুপ)-র আলোচনা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে আগামী নয় মাসের ভেতর নির্বাচন অনুষ্ঠান করা হবে।


তিনি জানান, এখন টিএমসি আন্তর্জাতিক কমিউনিটির সুপারভিশনে নির্বাচন অনুষ্ঠান জন্য একটি অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করবে।



এএস


 

Print