রোহিতের সেঞ্চুরিতে ফের বিধ্বস্ত প্রোটিয়ারা

স্পোটর্স ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৬ জুন, ২০১৯ ১৫:৩৫:২৩
#

সর্বশেষ  ভারতের কাছে পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়ে টানা তিন ম্যাচে হেরে এবারের বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকা পুরোপুরি ব্যাকফুটে। বিরাট কোহলির দলের কাছে তারা হেরেছে ৬ উইকেটের ব্যবধানে।


বিশ্বকাপ শুরুর এক সপ্তাহ পর এই প্রথম খেলতে নামলো ভারত। নেমেই চলতি বিশ্বকাপে টানা তৃতীয় হারের স্বাদ দিলো দক্ষিণ আফ্রিকাকে। গ্রুপ পর্বের ৯ ম্যাচের মধ্যে ৩টিতেই হেরে গেছে তারা। বাকি আছে আর কেবল ৬ ম্যাচ। ইতিমধ্যেই ইনজুরির কারণে ছিটকে গেছেন ডেল স্টেইন। বোঝাই যাচ্ছে, এবার বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার অবস্থা হতে যাচ্ছে শোচনীয়।



রোহিত শর্মার অসাধারণ এক সেঞ্চুরির কাছেই মূলতঃ উড়ে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকানরা। মাত্র ২২৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে একটু রয়ে-সয়ে খেললেও, নিজেকে সেট করে নিয়ে প্রোটিয়া বোলারদের ওপর চড়াও হন রোহিত শর্মা। এরপর তিনি পূরণ করে নেন ক্যারিয়ারের ২৩তম সেঞ্চুরি।


রোহিতের এই সেঞ্চুরির ওপর ভর করেই মূলতঃ সহজ জয় হাতের মুঠোয় এসে ধরা দেয় ভারতের। রোহিতের সঙ্গে কিছুক্ষণ করে সঙ্গ দিয়ে যান বিরাট কোহলি, লোকেশ রাহুল এবং মহেন্দ্র সিং ধোনি।


২২৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে রোজ বোলের উইকেটে শুরুতে কিছুটা লড়াই করতে হয়েছে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের। ৮ রান করে শুরুতেই আউট হয়ে যান ওপেনার শিখর ধাওয়ান। বিরাট কোহলি আউট হয়ে যান ৩৪ বলে ১৮ রান করে। লোকেশ রাহুল আউট হন ৪২ বলে ২৬ রানে ফিরে যান সাজঘরে। মহেন্দ্র সিং ধোনি আউট হন ৪৬ বলে ৩৪ রান করে।


নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিলেও প্রোটিয়া বোলার ইমরান তাহির, কাগিসো রাবাদা, ক্রিস মরিস, আন্দিল পেহলুকাইয়ো কিংবা তাবরিজ শামসিরা রোহিত শর্মাকে বিপদে ফেলতে পারেনি মোটেও। ফলে ভারতের জয়টা এসে যায় খুব সহজেই। ৪৭.৩ ওভার ব্যাট করেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ভারতীয়রা। ১৪৪ বলে ১২২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থেকে যান রোহিত শর্মা। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৩টি বাউন্ডারি আর ২টি ছক্কায়। হার্দিক পান্ডিয়া অপরাজিত থাকেন ৭ বলে ১৫ রানে।


এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় বোলারদের তোপের মুখে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ২২৭ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। সর্বোচ্চ ৪২ রান করেন ক্রিস মরিস। ৩৮ রান করেন ফ্যাফ ডু প্লেসি। ৩৪ রান করেন আন্দিল পেহলুকাইয়ো। ৩১ রান করে করেন দু’জন। ডেভিড মিলার এবং কাগিসো রাবাদা। রাবাদা তো অপরাজিতই ছিলেন।


ভারতের হয়ে ইয়ুজবেন্দ্র চাহাল নেন ৪ উইকেট। ২টি করে উইকেট নেন জসপ্রিতম বুমরাহ এবং ভুবনেশ্বর কুমার।


জেড

Print