অভিবাসন নিয়ে সমঝোতা, শুল্কযুদ্ধ এড়াল মেক্সিকো-যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
০৮ জুন, ২০১৯ ১৫:০৫:১৭
#

অবশেষে চুক্তির মধ্য দিয়ে সম্ভাব্য শুল্কযুদ্ধ এড়াল মেক্সিকো ও  যুক্তরাষ্ট্র। মেক্সিকো জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে মেক্সিকানদের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে কঠোর পদক্ষেপ নেবে তারা। এ বিষয়ে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে দুই প্রতিবেশি রাষ্ট্র।


গত কয়েক মাসে মেক্সিকো থেকে যুক্তরাষ্ট্রে অনুপ্রবেশ ব্যাপক হারে বেড়ে যায়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অনুপ্রবেশ ঠেকাতে মেক্সিকোর ওপর বড় মাপের বাণিজ্য শুল্ক আরোপ করার হুমকি দেন। এ নিয়ে দুই‌দেশের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা শুরু হয়।


একাধিক টুইট বার্তায় ট্রাম্প জানান, মেক্সিকো ওপর ‘অনির্দিষ্টকালের‌’ জন্য শুল্ক আরোপ বন্ধের বিষয়ে একটি চু্ক্তিতে সম্মত হয়েছে দুদেশ।


এর আগে ট্রাম্প হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, মেক্সিকো যদি অভিবাসন নিয়ন্ত্রণ না করতে পারে, তাহলে দেশটি থেকে আমদানি পণ্যের ওপর পাঁচ থেকে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত শুল্ক আরোপ করা হবে।


তবে নতুন এই চুক্তির বিষয়ে বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি।


তিনদিন ধরে আলাপ-আলোচনা শেষে, দুদেশের মধ্যে সমঝোতা চুক্তির বিষয়টি এক টুইটে নিশ্চিত করেছেন মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্সেলো এবরার্ড।


চুক্তি সম্পর্কে কতটুকু জানা গেছে?


এক যৌথ ঘোষণায় জানানো হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে অস্বাভাবিক অনুপ্রবেশ ও মানবপাচার ঠেকাতে ‘অভূতপূর্ব’ পদক্ষেপ নেবে মেক্সিকো।


চুক্তি অনুসারে, আগামী সোমবার (১০ জুন) থেকে সারাদেশে ন্যাশনাল গার্ড মোতায়েন করবে মেক্সিকো। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে ন্যাশনাল গার্ড মোতায়েন করা হবে।


এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় চাওয়া মেক্সিকানদের ফেরত নিতেও সম্মত হয়েছে মেক্সিকো। আগেও মেক্সিকো থেকে অনুপ্রবেশকারীদের ফেরত পাঠাতো যুক্তরাষ্ট্র। তবে নতুন চুক্তি অনুযায়ী, আরো বেশি সংখ্যক অবৈধ অভিবাসীদের ফেরত নেবে মেক্সিকো।


মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী নতুন চুক্তিকে ‘ভারসাম্যপূর্ণ’ বলে অভিহিত করেছেন।


কতটুকু শুল্ক আরোপের হুমকি দিয়েছিলেন ট্রাম্প?


মেক্সিকো থেকে আমদানিকৃত পণ্যের ওপর প্রতি মাসে পাঁচ শতাংশ হারে শুল্ক আরোপের হুমকি দেন ট্রাম্প। এসব পণ্যের মধ্যে রয়েছে গাড়ি, বিয়ার, টাকিলা (এক ধরনের মদ), ফল, শাক-সবজি ইত্যাদি।


গত সপ্তাহে টুইটারে এসব হুমকি দিয়েছিলেন ট্রাম্প।


যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তের পরিস্থিতি কেমন?


মেক্সিকো বনাম যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উদ্ভূত পরিস্থিতি চরমসীমায় পৌঁছায় গত বুধবার। এদিন যুক্তরাষ্ট্রের কাস্টমস ও সীমান্ত সুরক্ষা বিভাগ জানায়, মে মাসে গত এক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ হারে মেক্সিকো থেকে অবৈধ অভিবাসী যুক্তরাষ্ট্রে অনুপ্রবেশ করেছে।


যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত প্রহরীরা মে মাসে এক লাখ ৩২ হাজার ৮৮৭ জন অনুপ্রবেশকারীকে আটক করেছে্। এর আগের মাসের (এপ্রিল) চেয়ে এ হার ৩৩ শতাংশ বেশি। এ ছাড়া মেক্সিকোতে  ফেরত পাঠানো হয়েছে আরো ১১ হাজার ৩৯২ জনকে।


যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, এসব অনুপ্রবেশের চেষ্টাকারীদের মধ্যে সাড়ে ১১ হাজারের বেশি পরিবারবিহীন শিশুও রয়েছে।


ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর এটাই এক মাসে অনুপ্রবেশকারী আটকের সর্বোচ্চ সংখ্যা।


এসএম

Print