স্কুলছাত্রীর গায়ে আগুন, আটক ১

রাজবাড়ি করসপন্ডেন্ট
টাইম নিউজ বিডি,
০৯ জুন, ২০১৯ ১৭:৩৭:২১
#

রাজবাড়ীর সদর উপজেলার পাচুরিয়া ইউনিয়নের খোলাবাড়িয়া গ্রামে ১০ম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা মামলায় পুলিশ একজন সন্দেভাজনকে আটক করেছে।


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আটককৃত যুবকের নাম সেতু (২৫)। তিনি স্কুলছাত্রী হত্যা মামলার প্রধান আসামি শিল্পী বেগমের ভাগনে।


রোববার (৯ জুন) সন্দেহভাজন একজন আটক করার কথা বার্তা২৪.কম-কে নিশ্চিত করেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার।


তিনি বলেন, ‘স্কুলছাত্রীর গায়ে আগুন দেওয়ার ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার তদন্ত করছেন। যেহেতু বিষয়টি স্পর্শকাতর, সেহেতু একটু সতর্কতার সাথে কাজ করছি। সময় হলেই সবাইকে জানিয়ে দেওয়া হবে।’


প্রসঙ্গত, গত ৪ জুন রাজবাড়ী সদরের পাচুরিয়া ইউনিয়নের খোলাবাড়িয়া গ্রামে খানখানাপুর তমিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর অন্য ছেলের সাথে কিছু আপত্তিকর ছবি ইন্টারনেটে ফাঁস করার কথা বলে স্থানীয় বাসিন্দা শিল্পী বেগম ঐ ছাত্রীর পরিবারের কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন।


চাঁদা না দেওয়ায় পরের দিন বোরখা পরিহিত চারজন ব্যক্তি ঐ ছাত্রীকে তাকে জিম্মি করে পাশের পাটক্ষেতে নিয়ে গিয়ে হাত-পা-মুখ বেঁধে শারীরিক আঘাত করে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। তারই প্রেক্ষিতে ঐ ছাত্রীর বড় ভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সোহেল তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়।


বিষয়টি সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদারের নজরে আসলে পুলিশ ঐ ছাত্রীর বড় ভাই ও বাবাকে থানায় ডেকে নিয়ে শনিবার (৮ জুন) একটি এজাহার দায়ের করান।


এসএম

Print