ব্রিস্টলে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি, নেই রোদের আভাস

স্পোর্টস ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১১ জুন, ২০১৯ ১৮:২০:৪৩
#

ব্রিস্টলের ওয়েদার বুলেটিনে গতকালই জানানো হয়েছিল, মঙ্গলবার সারাদিন বৃষ্টি হতে পারে। আজ সকাল হতেই আবহাওয়া অধিদফতরের সে অনুমান যেন সত্যি হল। 


মঙ্গলবার ব্রিস্টলের সকাল শুরু হয়েছে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি দিয়ে। আবহাওয়ার বুলেটিনে বলা হয়েছে, এ বৃষ্টি বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সাথে বাড়তে পারে। নেই রোদের কোনো আভাস।


ব্রিস্টল সময় সকাল সাড়ে ৬টায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে ১২টা) আকাশ মেঘলা দেখা যায়, সঙ্গে ঝিরঝির বৃষ্টি। আকাশ মেঘলা থাকায় সকালে সূর্যের দেখা মেলেনি। বৃষ্টির সঙ্গে রয়েছে বাতাস।


যদি ওয়েদার বুলেটিনের অনুমান অনুযায়ী সারাদিন বৃষ্টি হয় তাহলে পয়েন্ট ভাগাভাগিকেই সান্ত্বনা পুরস্কার হিসেবে মেনে নিতে হবে মাশরাফিদের। কিন্তু সেটা হবে ম্যাচ হারার মতোই কোনো ব্যাপার। 


কেননা, বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল হিসেবে কড় গুনে যে ম্যাচগুলো ধরে রাখা হয়েছে, তাদের মধ্যে প্রথমেই রয়েছে শ্রীলংকার ম্যাচ। এবং এই বিশ্বকাপে আজকের ম্যাচটিতেই প্রথমবারের মতো ফেভারিটের স্বীকৃতি নিয়ে নামার কথা টাইগারদের। 


কার্টেল ওভারে লটারির মতো হিসাবও মেনে নিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ, হার কোনোমতেই নয়। কিন্তু যদি ন্যূনতম ২০ ওভারও খেলা না হয় তাহলে পুরো ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে সান্ত্বনার এক পয়েন্ট মিলবে টাইগারদের। 


জুন থেকে আগস্ট। প্রকৃতির নিয়মে এই তিন মাস ইংলিশদের গ্রীষ্মকাল। তার মধ্যে আবার জুনে তাপমাত্রা থাকে ১২-২২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। ধীরে ধীরে সেটা বাড়তে থাকে। আগস্টে সেটা ২৩ কিংবা ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ঘর স্পর্শ করে। আর বৃষ্টিপাত তো আছেই।


বিশেষ করে জুনে সপ্তাহের প্রায় চার দিনই বৃষ্টি হয়। আবার দিনের মধ্যে প্রায় আট ঘণ্টা ভালো করে দেখা যায় সূর্যের মুখ। ঠিক এমন একটা সময়ে সেখানে চলছে বিশ্ব ক্রিকেটের ১২তম মেগা আসর। তাতে অনুমিতভাবে বৃষ্টির চোখ রাঙানিও দেখতে হচ্ছে বারংবার। 


গতকাল সোমবার সাউদাম্পটনে ৪৫ বল গড়ানোর পর বেরসিক বৃষ্টি হানা দেয়। তাতে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়। এর আগে  বেরসিক বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয় শ্রীলংকা-পাকিস্তানের ম্যাচটি।


এ ছাড়া আরও কয়েকটি ম্যাচে বৃষ্টির বাগড়া উপেক্ষা করে ব্যাট-বলের লড়াই উপভোগ করতে হয়েছে ক্রিকেটপ্রেমীদের।


এমআর

Print