বিএসএমএমইউতে দুর্নীতির অভিযোগে বিক্ষোভের: ৫০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১২ জুন, ২০১৯ ১৫:২৬:১২
#

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) বিশৃঙ্খলা ও উপাচার্যের কার্যালয় ভাঙ্চুরের অভিযোগে শাহবাগ থানায় ৫০ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর বাদী হয়ে মামলাটি করেন।


ইতোমধ্যে বিক্ষোভের মুখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘মেডিক্যাল অফিসার’ পদের নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য কণক কান্তি বড়ুয়া এ ঘোষণা দেন।


নিয়োগপ্রার্থীদের বিক্ষোভের মুখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসক নিয়োগ স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বিএসএমএমইউতে বিক্ষোভ শুরু করেন আন্দোলনরত চিকিৎসকরা।


এক পর্যায়ে আজ মঙ্গলবার সকালে ক্ষুব্ধ চিকিৎসকরা ভিসিকে তার কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখেন। এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে আন্দোলনকারীদের সাথে প্রশাসনের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয়।


ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীলতা তৈরি হলে দুপুরে উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিতের ঘোষণা দেন।


এর আগে উপাচার্যের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও পরীক্ষার্থীরা সাক্ষাৎ করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় হাতাহাতির ঘটনা ঘটে এবং অনেকে আহত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে তারা উপাচার্যের কক্ষের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।


আন্দোলনকারীদের অভিযোগ: পুলিশের কিছু অতি উৎসাহী সদস্য তাদের উপর চড়াও হয়ে মারধর করেছে। তবে পুলিশ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, তারা নির্দেশ মোতাবেক পরিচয় ছাড়া ভিতরে প্রবেশে বাধা দিয়েছে।


অন্যদিকে আন্দোলনকারীরা সিন্ডিকেট মিটিংয়ের মাধ্যমে নিয়োগ বাতিল না হওয়া পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।


এএস

Print