ঘুষের কারণে নয়, তথ্য পাচারের অভিযোগে বাছির বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১২ জুন, ২০১৯ ২১:১৩:২৬
#

ঘুষের কারণে নয়, তথ্য পাচারের অভিযোগে দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রধান ইকবাল মাহমুদ।


আজ (১২ জুন) বুধবার দুদক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান বলেন, “ঘুষের বিষয় নিয়ে মিডিয়ায় ভুলভাবে উপস্থাপন হয়েছে। তথ্য টুইস্ট করা হয়েছে।”


ইকবাল মাহমুদ বলেন, “আমরা তাঁকে (এনামুল বাছির) ঘুষের কারণে বরখাস্ত করিনি। এটা তো প্রমাণের বিষয়। দুদকের অভ্যন্তরীণ তথ্য বাইরে কীভাবে গেল, সেটাই বড় প্রশ্ন। এতে আচরণবিধি লঙ্ঘিত হয়েছে। যদিও এটাও প্রমাণের বিষয়।”


এরপর দুপুরে দুদক কার্যালয়ে প্রবেশের সময় এনামুল বাছির বলেন, “গণমাধ্যম ভুল, মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য পরিবেশন করে আমার ক্ষতি করছে, তারা যাচাই-বাছাইয়ের প্রয়োজন মনে করছে না।”


এনামুল বাছির আরও বলেন, “আমার ক্ষতি করে কুশল ও সালাম বিনিময় অপ্রয়োজনীয়। সাংবাদিকদের এড়াতে সাড়ে ১২টায় দুদকে ঢুকলাম। তবুও সাংবাদিকদের কাছ থেকে ছাড় পেলাম না।”


উল্লেখ্য, ডিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনসহ নানা দুর্নীতির অভিযোগে অনুসন্ধান চালায় দুদক। গত মাসে ওই অনুসন্ধান প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়। অনুসন্ধান করেন দুদক কর্মকর্তা এনামুল বাছির।


তার বিরুদ্ধে ডিআইজি মিজান অভিযোগ করেন, দুর্নীতির অভিযোগ থেকে বাঁচতে এনামুল বাছিরকে দু'দফায় ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েছেন তিনি।


ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠার পর এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে দুদক। আর ডিআইজি মিজানের ঘুষ দেওয়ার ঘটনা নজরে আসায় খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলছে পুলিশ সদর দফতর।


এমবি  

Print