এই বাজেটে দেশ পুরোপুরি ঋণ নির্ভর হয়ে পড়বে: খসরু

টাইম ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১৪ জুন, ২০১৯ ০০:২০:৫৮
#

প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেটে দেশের অর্থনীতি পুরোপুরি ঋণ নির্ভর হয়ে পড়বে এবং এই ঋণ শোধ করতে হবে দেশের মানুষকে।


বৃহস্পতিবার বাজেট পরবর্তী প্রতিক্রিয়ায় এমন মন্তব্য করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।


তিনি বলেন, জনগণকে বাইরে রেখে যেভাবে জাতীয় নির্বাচন করছে আওয়ামী লীগ সরকার সেভাবেই জনগণকে পাশ কাটিয়ে পেশ করা হয়েছে অর্থ বছরের বাজেট, যা জনগণের কোনো কাজে আসবে না।


বর্তমান সরকারকে অনির্বাচিত দাবী করে তিনি আরও বলেন, সরকার অবৈধ তাই বাজেট পেশ করার নৈতিক কোনো অধিকার নেই তাদের। জনগণ যেভাবে এই নির্বাচন গ্রহন করেনি, সেভাবে বাজেটও গ্রহণ করবে না। এই বাজেট জনগণের কোনো কাজে আসবে না, জনগণ এই বাজেট প্রত্যাখ্যান করবে।


দেশের রাজনীতি এবং অর্থনীতি একটি শ্রেণির কাছে জিম্মি হয়ে পড়ছে বলেও মনে করেন আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, দেশে গণতন্ত্র না থাকলে দেশে সুশাসন থাকে না। সুশাসনের অভাবে সামষ্টিক অর্থনীতি বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।


দেশে সুশাসন এবং জবাবদিহিতা না থাকায় অর্থনৈতিক খাত ভেঙ্গে পড়ছে বলেও মনে করেন বিএনপির এই নেতা। তিনি বলেন, দেশে ব্যক্তিগত বিনিয়োগ বন্ধ, শেয়ার বাজারে অস্থিরতা, ব্যাংকে তারল্য সংকট। প্রবৃদ্ধি এবং জিডিবি নিয়ে মিথ্যে তথ্য সরকার দিচ্ছে।


রপ্তানির চেয়ে আমদানি বেশি হচ্ছে যার ফলে দেশের অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে। এতে করে দেশের অর্থনীতির ভীত নড়বড়ে হয়ে পড়েছে।
তিনি বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বেশি বেকার লোক বাংলাদেশে। আয় বাড়লে দারিদ্রতা কমার কথা বলেলেও বাংলাদেশে তার চিত্র উল্টো।


এই বাজেট জনগণের কোনো কাজে আসবে না। এই বাজেট বাস্তবায়নযোগ্য নয় বলেও মনে করেন তিনি। আগামীকাল শুক্রবার গুলশানে বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বাজেটের আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাবে বিএনপি।


জেড

Print