বাজেটে আয় ও ব্যয়ের মধ্যে বিশাল ফারাক: জাপা

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১৫ জুন, ২০১৯ ২৩:৫৯:২৮
#

প্রস্তাবিত বাজেটে আয় ও ব্যয়ের মধ্যে একটি বিশাল ফারাক আছে, এমন দাবি করেছে সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (জাপা) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি।


শনিবার রাজধানীর বনানীতে জাপার কার্যালয়ে বাজেট ঘোষণা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন জিএম কাদের।


তিনি বলেছেন, এ যাবতকালের সবচেয়ে বড় বাজেট ২০১৯-’২০ অর্থবছরে ঘোষণা করেছে সরকার। বাজেটের আকার ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। এই বাজেটে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। বাজেটের রাজস্ব আয় এবং উন্নয়ন ব্যয়- এ দুটির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সরকারের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।


২০১৯-২০ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে নানা সংশয় প্রকাশ করেছে বিরোধীদল জাতীয় পার্টি ও সরকারের শরীকরা। রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হলে প্রস্তাবিত এ বাজেট বাস্তবায়ন কঠিন বলে জানিয়েছেন, জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের।


অপরদিকে, এ বাজেট কৃষক বান্ধব নয় বলে মনে করেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।


তিনি বলেন, পর্যাপ্ত লোকবলের অভাবে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হলে বাজেট বাস্তবায়নও কঠিন হবে। এছাড়া, ঘাটতি মেটাতে ব্যাংক থেকে বিরাট অংকের ঋণ নেয়া হলে দেশের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।


জি এম কাদের বলেন, ভ্যাটের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় অংশ আদায় হবে কিনা সে ব্যাপারে সংশয় রয়েছে। অপর এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, এ বাজেটে দেশের ধনিক শ্রেণীকে আরও বেশী ধনী বানানোর সুযোগ সৃষ্টি হবে।


রাশেদ খান মেনন বলেন, নানাভাবে সুবিধাভোগীদের আরও বেশি সুবিধা দেয়া হয়েছে। অথচ কৃষকদের কোন ধরণের সুবিধা প্রদান করা হয়নি।


বাজেটে দেশের কৃষকদের জন্য ভর্তুকি দেয়ার পাশাপাশি কৃষি খাতসমূহকে আরও বেশী গুরুত্ব দেয়ার আহবান জানান তারা।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাপার মহাসচিব ও সদস সদস্য (এমপি) মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা প্রমুখ।



এএস


 


 

Print