স্মার্টফোনে ২৩% বর্ধিত কর প্রত্যাহারের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
১৯ জুন, ২০১৯ ১৮:৪৭:৫০
#

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে স্মার্টফোন আমদানির ওপর আরোপিত ২৩ শতাংশ বর্ধিত কর প্রত্যাহারের দাবিতে দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ব্যবসায়ী এসোসিয়েশন (বিএমবি)।


আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানায় সংগঠনটি। সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বি এম বি এর সভাপতি মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু।


সভাপতি বলেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরে আমদানি শুল্ক, ভ্যাট ও অন্যান্য খরচ সহ মোবাইল ফোন আমদানিতে সর্বমোট করের হার ছিল ৩০ দশমিক ৭৫ শতাংশ। কিন্তু ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট অনুযায়ী সর্বসাকুল্যে এই খরচ দাঁড়াবে ৫৭ দশমিক ৩১ শতাংশ। যার মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত হবে দেশীয় মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।পাশাপাশি কর্মসংস্থান হারাবে বহু মানুষ।


বাংলাদেশের স্মার্ট ফোন উৎপাদনে সমৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থানের কথা চিন্তা করে অতিরিক্ত শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানায় বিএমবিএ। বর্তমানে যে সমস্ত ব্র্যান্ড বাংলাদেশে মোবাইল ফোন উৎপাদন শুরু করেছে, সে সব মোবাইলের গুণগতমান সম্পন্ন করে বাজারে সরবরাহ করতে আরও দুই থেকে তিন বছর সময় লাগবে। সে কারণে বিদেশি ব্র্যান্ডগুলোকে সুবিধা না দিয়ে দেশি প্রতিষ্ঠানগুলোকে সুযোগ করে দেওয়ার অনুরোধ জানান সভাপতি।


সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সেক্রেটারি হাবিবুর রহমান, স্মার্টফোন বিশেষজ্ঞ লেফটেন্যান্ট কর্নেল অবসরপ্রাপ্ত সৈয়দ সাকলাইন সহ আরো অনেকে।


এসএম/জেড

Print