স্থবির ঢাকা- সিলেট মহাসড়ক; বিকল্প সড়ক চলাচলের অনুপযোগী

স্টাফ রিপোর্টার
টাইম নিউজ বিডি,
২৪ জুন, ২০১৯ ১৬:১৯:২০
#

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে শাহবাজপুর সেতু দিয়ে ভারী ও মাঝারি যান চলাচল বন্ধ থাকায় সেতুর দুই পাশে আটকে আছে শতশত পণ্যবাহী ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান। গত মঙ্গলবার স্প্যানের ফুটপাতসহ রেলিং ভেঙে যাওয়ার পর থেকে আটকে আছে এসব ট্রাক। এতে নষ্ট হচ্ছে কাঁচা পণ্য।


সড়ক বিভাগের পক্ষ থেকে বিকল্প পথে চলাচলের পরামর্শ দিলেও তা ওই পথে যেতে রাজি হচ্ছেন না চালকরা। বলছেন, বিকল্প সড়ক ভাঙাচোরা-সরু হওয়ায় পণ্যবাহী ভারী ট্রাক চলাচলের অনুপযোগী।


ট্রাক চালকরা জানান, পাঁচ দিন ধরে আটকে থাকায় পণ্য নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা। লাখ লাখ টাকার সবজি, ফল থাকায় এসব পচে যাচ্ছে।


আশুগঞ্জ ট্রাক মালিক সমিতি’র প্রচার সম্পাদক শরীফ খান বলেন, ট্রাক চলাচল বন্ধ থাকায় সবার আর্থিক অবস্থা খারপ। বিকল্প হিসেবে তিতাস নদে ফেরি সার্ভিস চালু হলে সংকট কিছুটা কমবে বলে মনে করেন এই নেতা।


এদিকে পণ্য আনা-নেয়া ব্যাহত হওয়ায় বিপাকে সিলেট অঞ্চলের শিল্পকারখানা মালিকরাও। সময়মতো মালামাল না পৌঁছানোয় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন তাার।


ক্ষতিগ্রস্ত সেতুতে বেইলি ব্রিজ স্থাপনের কাজ শেষ পর্যায়ে বলে জানিয়েছেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শামীম আল মামুন। বলেন, বেইলি ব্রিজ হয়ে গেলে গাড়ি চালু করব। তখন যাত্রীরা বাস থেকে নেমে সেতু পার হয়ে আবার বাসে উঠবে; আর খালি বাস সেতু পার হয়ে যাবে। তবে খুব দ্রুত ফেরি সার্ভিস চালুরও আশ্বাস তার।


তিতাস নদের ওপর ১৯৬৩ নির্মিত হয় শাহবাজপুর সেতু। কয়েক বছর আগে সেতুতে ফাটল দেখা দিলে ১৫ টনের অধিক পণ্যবাহী যানচলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেয় সড়ক বিভাগ। তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভারী যান চলাচল করায় গত মঙ্গলবার স্প্যানের ফুটপাতসহ রেলিং ভেঙে পড়ে। বন্ধ করে দেয়া ভারী ও মাঝারি যান চলাচল।


এসএম

Print