ধর্ষকের শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবিতে মানববন্ধন

টাইম ডেস্ক
টাইম নিউজ বিডি,
১০ জুলাই, ২০১৯ ১৭:৪৬:২৫
#

শিশু ধর্ষণ, হত্যার প্রতিবাদ এবং ধর্ষকের একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবিতে মানববন্ধন করেছে 'শিশুদের জন্য ফাউন্ডেশন'।


বুধবার (১০ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মুখে কালােকাপড় বেঁধে মানববন্ধন করে সংগঠনটি।


মানববন্ধনে 'শিশুদের জন্য ফাউন্ডেশন'র প্রতিষ্ঠাতা মুঈদ হাসান তড়িৎ জানান , গত ৬ মাসে আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে শিশু ধর্ষণের সংখ্যা। শুধুমাত্র বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশে গত ৬ মাসে ৫৩৭ জনেরও বেশি শিশু ধর্ষিত হয়েছে। গণধর্ষণের শিকার হয়েছে ৫৩ শিশু, হত্যা করা হয়েছে ২০৮ শিশুকে। এছাড়াও শিশু ধর্ষণের পর হত্যা এবং ধর্ষিত শিশুর আত্মহত্যার ঘটনাও ঘটেছে।


তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘােষণার পরেও ধর্ষণের একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ড করা হয়নি। বছরের পর বছর ধরে মামলা চলছে , শাস্তি ঘোষণা হলেও আদালতের রায় দ্রুততার সাথে কার্যকর হচ্ছে না। এর ফলে অপরাধীরা পার পেয়ে যাচ্ছে। অনেকে জামিন নিয়ে বেড়িয়ে আসছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে শিশুদের সাথে এইসব জঘন্যতম ঘটনাগুলাে ঘটতে থাকবে।


মুঈন হাসান বলেন, বর্তমান সরকার শিশুতােষ বিষয়গুলােতে বেশ আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে। সেই সাথে শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারলে সরকারের সব অর্জন ম্লান হয়ে যাবে।


মানবন্ধন থেকে ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে ৭ দফা দাবি তুলে ধরা হয়:


১। শিশু ধর্ষণের বিচার কার্যক্রম দ্রুততার সাথে সমাপ্ত করতে হবে এবং ধর্ষণকারীর দৃষ্টান্তমূলক এবং একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ড কার্যকর করতে হবে এবং আর্থিক জরিমানা করতে হবে।


২। ধর্ষকের পরিচয় গণমাধ্যমে বিস্তারিত প্রকাশ করতে হবে এবং সম্পদ বাজেয়াপ্ত করতে হবে।


৩। শিশুদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। ধর্ষিতার পরিবারের সুরক্ষা ও আইনী সহায়তায় নিশ্চিত করতে হবে।


৪। ধর্ষকের বিচার জামিন অযােগ্য ধারায় মামলা পরিচালনা করতে হবে। প্রমাণ সাপেক্ষে দেশের কোন আদালতে কোন আইনজীবি যেন ধর্ষকের পক্ষে আইনী লড়াই না করেন এই আহ্বান জানান।


৫। যারা ধর্ষকের বিচার গ্রাম্য সালিশ বা নামমাত্র অর্থমূল্যে মীমাংসা করবে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনতে হবে।


৬। শিশু ধর্ষণ, হত্যা ও নির্যাতন বন্ধে এবং সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণে জাতীয় পর্যায়ে এবং জেলা পর্যায়ে মনিটরিং সেল গঠন করতে।


৭। সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে , শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্ষণ বন্ধে খোলামেলা আলােচনা করতে হবে এবং শিক্ষার্থীদের সচেতন করতে হবে।


মানববন্ধনে শিশু সংগঠক, সংস্কৃতিকর্মী, শিশুদের জন্য ফাউন্ডেশনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্কুল।


 


এসএম/জেড

Print