হাতীবান্ধায় সড়ক যেন আবাদি জমি

লালমনিরহাট করেসপন্ডেন্ট
টাইম নিউজ বিডি,
১২ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৩৯:৪০
#

বর্ষাকাল শুরু হলেই হাতীবান্ধা উপজেলার ভোটমারী তেল পাম্প থেকে খোর্দ্দ বিছনদই আদি জামে মসজিদ পর্যন্ত সড়কটি পথচারীদের সীমাহীন ভোগান্তির কারন হয়ে দাড়ায়। পথচারীরা পড়ে যায় তখন চরম বিপাকে। এই সীমাহীন ভোগান্তি নিয়ে চলছে বছরের পর বছর।


স্থানীয় ইউপি সদস্য ও ইউপি চেয়ারম্যান ভোটের আগে আশ্বাস দিলে ও ভোটের পর সেই আশ্বাসের কথা ভূলে যায়। ভুলে যায় জনগনের ভোগান্তির কথা।


সরেজমিনে এমন চিত্র দেখা গেছে, লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার ডাউয়াবাড়ী ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডে। 


বর্ষা শুরু হলেই সড়কটি ব্যবহারে প্রতিনিয়ত চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী ও পথচারীদের। একটু বৃষ্টিতে সড়কটি পরিনত হচ্ছে কর্দমাক্ত চাষের জমিতে। এ অবস্থায়  ওই সড়ক দিয়ে গাড়ি তো দূরে থাক বাইসাইকেল চলাচলেরও অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। আর এর মুল কারন হচ্ছে অনুমোদনহীন ট্রাক্টরে অবৈধ বালি-মাটি ব্যবসায়ীদের কবলে পড়ে।


স্থানীয়রা জানান, অবৈধ বসত বাড়ী করে (পুরাতন ডিসি রোড) সরকারী ৫০ ফিট সড়ক দখল করে আছে। চলা চলের সড়ক না থাকায় এলাকাবাসীর অনুরোধে ব্যক্তি মালিকানা জমির উপর সড়কটি নির্মান করা হয়েছে। যে কোন সময় বন্ধ করে দিতে পারে এ সড়কটি। 


ডাউয়াবাড়ী ইউনিয়নের পাশ্ববর্তী কয়েকটি গ্রামের মানুষ প্রধান সড়ক হিসেবে এটি ব্যবহার করে।  গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে হাঁটু পর্যন্ত কাদা জমে যায়। দেখে মনে হয় আবাদি জমি। 


হতাশা আর ক্ষোভ প্রকাশ করে পথচারীরা বলছেন, প্রতিদিন ওই সড়কের কাদায় পড়ে ছাত্র-ছাত্রীসহ অনেককে বাড়ি ফিরে যেতে হয়। পথচারীরা সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। বিশেষ করে এলাকার মানুষ ব্যবসা বানিজ্যসহ বিভিন্ন প্রয়োজনে প্রতিদিন ভোটমারী বাজার থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি নিতে এই সড়ক দিয়েই চলাচল করে। সড়কটির অবস্থা করুন হওয়ায় অনেকের ব্যবসা বন্ধের উপক্রম হয়েছে। 


ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সুদৃষ্টি রাখলেই সড়কটির  উন্নয়ন সম্ভব। সেই সাথে ওই সড়কে থাকা অবৈধ বসত বাড়ী উচ্ছেদ করে সড়কটি পূর্ণ সংস্করণ করার জোর দাবি জানান এলাকাবাসী।


নুরনবী/এমবি  

Print