নেপালে বিমান বিধ্বস্তে নিহত ৩

নেপালের লুকলা বিমানবন্দরে উড্ডয়নের সময় রানওয়েতে থাকা নুড়ি পাথরে পিছলে একটি প্লেন পাশের হেলিকপ্টার পার্কিং এ ধাক্কা দিলে তিনজন মারা গেছেন।

রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ার সময় ৩০-৪০ মিটার দূরে থাকা দুটি হেলিকপ্টারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে বিমানটির। সঙ্গে সঙ্গেই সেটি বিধ্বস্ত হয়।

রোববার নেপালের লুকলা বিমানবন্দরে সামিট এয়ারের একটি বিমান রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। বিমান উড্ডয়ন এবং অবতরণের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক বিমান বন্দর হিসেবে পরিচিত লুকমা বিমানবন্দর।

নেপালের সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, লুকলা বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে ৯এন-এএমএইচ প্লেনটি হেলিকপ্টার পার্কিংয়ে গিয়ে আঘাত হেনে বিধ্বস্ত হয়। দুটি হেলিকপ্টারকে আঘাত হানে প্লেনি। রানওয়ে থেকে হেলিপ্যাডের দূরত্ব ছিল প্রায় ৫০ মিটার।

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রতাপ বাবু তিওয়ারি জানান, সামিট এয়ারের কো-পাইলট এস ধুঙ্গানা ও পুলিশের উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএসআই) রাম বাহাদুর খাদকা ঘটনাস্থলেই মারা যান।

পুলিশের আরেক এএসআই রুদ্র বাহাদুর শ্রেষ্ঠাকে কাঠমান্ডুর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন প্লেনের ক্যাপটেন আরবি রোকায়া ও মানাং এয়ারের ক্যাপটেন শেঠ গুরুং, যিনি হেলিকপ্টারে ছিলেন। দু’জনই শঙ্কামুক্ত।

তবে প্লেনে কতজন যাত্রী ছিলেন তাৎক্ষণিকভাবে তা জানায়নি সংবাদ মাধ্যমগুলো। 

 

এএস